আগামী কিছু দিনের মধ্যেই তুরস্ককে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দেওয়া শুরু করবে রাশিয়া। শুক্রবার ক্রেমলিনের এক মুখপাত্র এ কথা জানিয়েছেন।

আঙ্কারা এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা গ্রহণ করলে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারে বলে হুশিয়ারি দিয়ে রেখেছে ওয়াশিংটন। তবে শিগগিরই তা সরবরাহ করা হলেও ওয়াশিংটনের প্রতিক্রিয়া ধোয়াশার মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার জন্য চুক্তি সই করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। কিন্তু রাশিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কেনায় ক্ষুব্ধ ছিল তুরস্কের সাবেক মিত্র যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকার শুরু থেকেই এ চুক্তির তীব্র বিরোধিতা করে তিন ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দিয়ে রেখেছে।

তবে এই ক্রয় চুক্তি নিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের প্রতি প্রকাশ্যেই সমর্থন দেখিয়েছেন ট্রাম্প। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও হুমকি দিয়ে রেখেছেন রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয় চুক্তি বাতিল করা না হলে তুরস্কের কাছে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান বিক্রি বন্ধ করবে যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার ক্রেমলিনের তরফ থেকে শিগগিরই তুরস্কের কাছে অস্ত্র সরবরাহের কথা জানানো হলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। জানানো হয়েছে এর কারণে তুরস্ককে খুবই বাস্তব এবং নেতিবাচক পরিণতি ভোগ করতে হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য