জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি শাসনের মেয়াদ বাড়িয়ে যুব সম্প্রদায়ের মন জিততে চাইছে মোদী সরকার। আসলে রাষ্ট্রপতি শাসনের মধ্যেই উপত্যকায় কর্মসংস্থান বাড়াতে চাইছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। যুব সম্প্রদায়কে কাজের যোগান দিতে পারলেই সন্ত্রাসবাদ আর থাকবে না বলে মনে করছেন তিনি। টাইমস অব ইন্ডিয়া।

কর্মসংস্থান বাড়ানোর পাশাপাশি দুর্নীতিগ্রস্ত স্থানীয় বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের স্বরূপ কাশ্মীরবাসীর কাছে তুলে ধরতে চান অমিত শাহ। এই নেতাদের স্বরূপ সামনে এলেই যুব সম্প্রদায় এদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে বলে বিশ্বাস তাঁর।

ক্রমাগত সন্ত্রাসবাদের মধ্যে থেকে কাশ্মীরের মানুষ এখন ক্লান্ত এবং তাঁরা পরিবর্তন চান বলে মনে করছেন সেখানকার সরকারি অফিসাররা।

সম্প্রতি কেন্দ্র কাশ্মীরে শুরু করেছে ‘ব্যাক টু ভিলেজ’ প্রকল্প। এই প্রকল্পে সরকারি অফিসাররা রাজ্যের মোট ৪৪৮৩টি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় দু-দিন ও এক রাত করে কাটিয়ে আসছেন।

তাঁরা গ্রামের মানুষের সুখ-দুঃখের কথা বোঝার চেষ্টা করছেন। সঙ্গে প্রচুর নিরাপত্তা রক্ষী থাকলেও কিছুদিন আগেই এভাবে গ্রামে গ্রামে সরকারি অফিসারদের রাত কাটানোর কথা ভাবাই যেত না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য