যুক্তরাষ্ট্রের এক সরকারি তদন্তের রিপোর্ট বলছে, সে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের অঙ্গরাজ্যগুলির অভিবাসী বন্দিশালাগুলো বিপদজনকভাবে ভরপুর।

টেক্সাসের রিও গ্রান্ডে থেকে পাওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বন্দিশালায় যেখানে ৪০ জন পুরুষের থাকার কথা সেখানে ৫১ জন নারীকে বন্দী করে রাখা হয়েছে।

যেখানে ৪২ জন নারী থাকার কথা সেখানে ৭১ জন পুরুষ অভিবাসীকে আটকে রাখা হয়েছে।

কোন কোন কারাকক্ষে শুধু দাঁড়ানোর মতো জায়গা রয়েছে। আর সেখানে পুরুষদের এক সপ্তাহ থাকতে হয়েছে।

এধরনের একটি বন্দিশালার একজন ম্যানেজার বলছেন, পরিস্থিতি টাইম বোমার মতো। যে কোন সময়ে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

মার্কিন ইনস্পেকটর জেনারেল অফিসের কর্মকর্তারা রিও গ্রান্ডে এলাকার সাতটি অভিবাসী বন্দিশালায় এই তদন্ত চালিয়েছেন।

“ভিড় আর দীর্ঘ সময় আটক থাকার ফলে সরকারি কর্মকর্তা এবং বন্দীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি ও নিরাপত্তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন,” এই রিপোর্টে বলা হয়েছে।

কারাগারগুলো পরিদর্শন করে তদন্তকারীরা দেখেছেন, শিশুদের সর্বোচ্চ ৭১ ঘণ্টা আটক রাখার নিয়ম থাকলেও ৩৩% শিশুকে তার চেয়েও বেশি সময় আটক রাখা হয়েছে।

এ সময় তাদের গরম খাবার দেয়া হয়নি, গোসল করার পানি কিংবা পরিষ্কার পোশাক সরবরাহেরও ব্যবস্থাও ছিল না।

ইনস্পেকটারদের রিপোর্টে বলা হয়েছে, “বন্দিশালায় যাওয়ার পর আমাদের দেখে আটক অভিবাসীরা চিৎকার করতে থাকে, কারাকক্ষের দরোজা-জানালায় আঘাত করতে থাকে এবং আমাদের কাছে চিরকুট পাঠানোর চেষ্টা করে।”

মার্কিন কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার পেট্রোল বিভাগের হিসেব অনুযায়ী রিও গ্রান্ডে এলাকায় অভিবাসনকারীদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

গত এক বছরে এই এলাকা থেকে ২৫০,০০০ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য