দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বীরগঞ্জ পৌরসভা ৫ নং ওয়ার্ডের শান্তিবাক আবাসিক এলাকার বাবুর বাড়ীতে চাচী -ভাতিজাকে অবৈধ কাজে লিপ্ত থাকা অবস্থায় জনতা কর্তৃক আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করেছেন।

আটককৃত চাচী (৩০) ও ভাতিজা (২৮) কে বৃহস্পতিবার সকালে শান্তিবাক আবাসিক ভাড়া বাড়ী থেকে আটক করে বীরগঞ্জ ৫নং সুজালপুর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে এলে চাচী জানান ভাতিজার সঙ্গে তাদের প্রেমের সর্ম্পক চলছিল।

এব্যাপারে ভাতিজা জানান, তার চাচী মিথ্যা বলেছেন। একপর্যায় বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মো. ইয়ামিন হোসেন ভ্রাম্যমাণ আদালতে চাচীকে ১ মাস জেল ও ভাতিজাকে ৬ মাস জেল।

সাজা প্রদান করে জেলে প্রেরণ করার নির্দেশ প্রদান করেন। এব্যাপারে বীরগঞ্জ ৫নং সুজালপুর ইউপি চেয়ারম্যান মহেশ রায় জানান, চাচী-ভাতিজা তাদের বাড়ী বীরগঞ্জ উপজেলার ৫নং সুজালপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে।

তারা ভাড়াটে বাড়ীতে বসবাস অবস্থায় জনতা কর্তৃক আটক করে ৫নং সুজালপুর ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসলে বিষয়টি বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবগত করা হলে উক্ত চাচী-ভাতিজাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দণ্ড প্রদান করেন।

এব্যাপারে বীরগঞ্জ অফিসার ইনচার্জ সাকিলা পারভিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য