জি২০ সম্মেলনে যোগ দিতে বিশ্বনেতারা জাপানের বাণিজ্যিক শহর ওসাকায় উপস্থিত হতে শুরু করেছেন।

শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া এই সম্মেলন চলবে শনিবার পর্যন্ত।

এবারই প্রথমবারের মতো এ সম্মেলনের আয়োজক দেশ হয়েছে জাপান। দেশটির পশ্চিমাঞ্চল শহর ওসাকায় জি২০ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ সম্মেলন সফল করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি নিয়েছে দেশটি।

সম্মেলনের মূল আলোচনা ওসাকার আন্তজার্তিক প্রদর্শনী কেন্দ্র ‘ইনটেক্স’ এ হবে।

এবারের শীর্ষ সম্মেলনে জোটভুক্ত ১৯টি দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বাইরে আরও ৮টি দেশ এবং ৯টি বহুজাতিক সংস্থাসহ মোট ৩৭ টি দেশ ও সংস্থাকে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে জি২০ সম্মেলনের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এ সম্মেলনের সভাপতিত্ব করবেন।

এবারের সম্মেলনে বিশ্ব অর্থনীতি, বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, উদ্ভাবন, পরিবেশ ও শক্তি, শ্রমবাজার, নারীর ক্ষমতায়ন, উন্নয়ন এবং স্বাস্থ্য আলোচ্য বিষয় হিসেবে থাকবে।

সাগরে প্লাস্টিক দূষণ রোধ করতে ২০৫০ সালের মধ্যে করণীয় কি হবে তা নির্ধারণ করতে এই সম্মেলনে আলোচনা হবে। এবারের জি২০ সম্মেলনে প্লাস্টিক দূষণ কমাতে থ্রিআরএস (রিডিউস, রিইউজ অ্যান্ড রিসাইকেল) কৌশলকে কাজে লাগানোর সিদ্ধান্ত হতে পারে মনে করছেন আয়োজকরা।

১৯টি দেশ ও ইইউ মিলে গঠিত জি২০র মূল সদস্য সেগুলো হচ্ছে জাপান, মেক্সিকো, কোরিয়া প্রজাতন্ত্র, দক্ষিণ আফ্রিকা, রাশিয়া, সৌদি আরব, আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, ফ্রান্স, জার্মানি, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র।

এছাড়াও নেদারল্যান্ডস, সিঙ্গাপুর, স্পেন, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, মিসর, চিলি ও সেনেগালকে আমন্ত্রিত দেশ হিসেবে ওসাকায় ডাকা হয়েছে।

এদিকে জি২০ সম্মেলনে যোগ দিতে ইতোমধ্যে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ওসাকায় এসে পৌঁছেছেন।

ওসাকার উদ্দেশ্যে দেশত্যাগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এবারের সম্মেলনের সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিরোধ নিয়ে আলোচনা হতে পারে। জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবের সঙ্গে বেশ কয়েকটি দেশের দ্বি-পাক্ষিক বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

এছাড়াও ইরানের সঙ্গে চলা যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা প্রশমনে জাপানের পক্ষ থেকে কুটনৈতিক সহায়তা দেয়ার আশ্বাসও এসেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য