দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে জামাল উদ্দীন(৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা।

সে উপজেলার গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের পাদুমপুর(সোনাজুড়ি) গ্রামের মৃত আঃ রহমানের ছেলে। নিহত জামাল উদ্দীনের ছেলে সাইদুল ইসলাম ও ভাই সায়েদ আলী জানায় গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে নিহত জামাল উদ্দীনের বোন একই গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী সোনাভান বেগম তাদের যাতায়াতের রাস্তায় জমে থাকা পানি নিষ্কাষনের জন্য কেটে দেয়।

এ কারনে প্রতিপক্ষ একই গ্রামের মৃত আনছার মুন্সির ছেলে ইছার উদ্দীন তার সহযোগীদের নিয়ে সোনাভানের উপর আক্রমন চালায়। বোনকে তাদের হাত থেকে রক্ষার জন্য জামাল উদ্দীন তার ছেলে রহিনাল ও মোগলকে সাথে নিয়ে সেখানে যায়।

প্রতিপক্ষরা সকলকে মারপিটে গুরুতর আহত করে। রাতেই আহতদের নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসক জামাল উদ্দীনকে মৃত ঘোষনা করেন। অপর ৩ জন চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহত জামাল উদ্দীনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়।

নবাবগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শামসুল আলম জানান এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে সাইদুল ইসলাম বাদী হয়ে গতকাল বুধবার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলায় এজার নামীয় ৩ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো পাদুমপুর(সোনাজুড়ি) গ্রামের ইছার উদ্দীনের স্ত্রী হাসনা বানু, তার মেয়ে ও হরিপুর(পিরদহ)গ্রামের আমির হামযার স্ত্রী তারা বানু এবং পতœীচাঁন গ্রামের মৃত তাজের উদ্দীনের ছেলে নুরুল ইসলাম। নিহত জামালের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন এবং গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য