আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাটের ৫ উপজেলায় বজ্রপাতে ২ শিক্ষার্থীসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাত ১০টার দিকে মুষলধারে বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হয়।

আহতরা হলেন- হাতীবান্ধা উপজেলার মিলন বাজার এলাকার রোহেল উদ্দিনের স্ত্রী সেলিনা খাতুন (২৪), গড্ডিমারী ইউনিয়নের মধ্য গড্ডিমারী এলাকার আবু তালেবের স্ত্রী রানু বেগম (২০), সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী খোতেজা বেগম (৬০), সিঙ্গিমারী এলাকার আব্দুল লতিফের স্ত্রী নুর নাহার বেগম (৩৩) এবং বড়খাতা ইউনিয়নের পুর্ব সারোডুবি এলাকার আমিনুর রহমানের ছেলে মিরাজুল ইসলাম পরাগ হোসেন (১৭) ও পশ্চিম সারোডুবি এলাকার শামসুল হকের ছেলে সেলিম হোসেন (১৭), হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজের অনার্সের আলেমা খাতুন (১৮) ও টংভাঙ্গা এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে মিরাজ (১৬), কালীগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে আবু বক্কর(২৪) ভোটমারী ইউনিয়নের সেলিম মিয়ার ছেলে শাহিনুর ইসলাম(৩৩)। তারা বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।

হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজের অনার্সের আলেমা খাতুন বলেন, ‘বাড়ির বাইরে থাকা কাপড় আনতে গিয়ে আকস্মিক বজ্রপাতে মাটিতে পড়ে যাই। পরে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।’

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক যুগল কিশোর রায় জানান, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে এক শিক্ষার্থী আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য