নীলফামারীর ডিমলায় পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ জানায়, নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিন বালাপাড়া গ্রামের খোকা মামুদের কন্যা মাসুমা আক্তার(৪০) এর সাথে গত ১৮ বছর পূর্বে একই ইউনিয়নের ছাতনাই বালাপাড়া (ঘুঘুর ডাঙ্গা) গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে মমিনুর রহমান (৪৫) এর সাথে বিয়ে হয়।

দাম্পত্য জীবনে তাদের দুটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। গত ৬ মাস যাবত মমিনুর স্ত্রীকে ঘরে রেখে অন্য মহিলার সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পরে।

বিষয় স্ত্রী মাসুমা জানতে পেরে প্রতিবাদ করলে। মমিনুর প্রায় সময় মাসুমাকে শারিরিক নির্যাতন করতে থাকে।

এ বিষয়ে কয়েক বার স্থানীয় ভাবে আপস মিমাংসা হলেও মমিনুর পরকিয়া চালিয়ে যায়। এবং স্ত্রী মাসুমার পিতার বাড়ী হতে যৌতুক বাবদ ১ লাখ টাকা আনার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।

গত রোববার রাতে মমিনুর ও তার পরিবারের লোকজন যৌতুকের টাকার জন্য মাসুমাকে বেধরক মারপিট করলে মাসুমার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে মাসুমার পিতা খোকা মামুদ বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে ডিমলা থানার হত্যা মামলা নাম্বার ১৪,তারিখ ২৪,০৬,১৯ইং দায়ের করেন।

ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। পুলিশ মাসুমার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য