দিনাজপুর সংবাদাতাঃ টার্কি মুরগি খামার করে মুনাফার প্রলোভনের ফাঁদে ফেলে কয়েক শত কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়া স্বপ্নতরীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মানিক চন্দ্র বর্মনকে গ্রেফতার এবং টাকা ফেরতের দাবীতে মানববন্ধন করেছে প্রতারিত ও ক্ষতি কয়েকশ মানুষ।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকশ নারী-পুরুষ এই মানববন্ধনে অংশ নেয় এবং মানববন্ধন শেষে ক্ষতিগ্রস্থরা জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি ষ্মারকলিপি প্রদান করেছে।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া প্রতারিত লোকজন অভিযোগ করে বলেন,প্রশাসনের উদাসীনতায় মানিকচন্দ্র বর্মন দিনাজপুরসহ বিভিন্ন জেলার প্রায় ৩১ উপজেলার দুই হাজার মানুষের শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে তাদের পথে বসিয়েছে।

তারা আরো বলেন,এলাকার সংসদ সদস্য মনোরঞ্জনশীল গোপালসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসারে কাছে লিখিত অভিযোগ এবং থানায় মামলার পরও কোন প্রতিকার পাচ্ছেনা তারা। এবাপারে গত বৃহস্পতিবার স্বপ্নতরীর কর্ণধার মানিক বর্মনসহ প্রতিষ্ঠানটির কয়েক জনের নাম উল্লেখ করে বীরগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়েছে। মামলা নং ১৬ তাং ১৯/০৬/১৯।

টার্কি মুরগী পালন প্যাকেজ প্রোগ্রামের নামে স্বপ্নতরীর কর্ণধার মানিক বর্মন ইতিমধ্যেই দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় এবং নীলফামারী জেলার বিভিন্ন উপজেলার শত শত গ্রাহকের কয়েক শত কোটি টাকা নিয়ে এখন উধাও রয়েছে এবং তার অফিসও তালা বদ্ধ।

প্রতারনার স্বীকার ক্ষতিগ্রস্থ দিনাজপুর সদরের হাফিজুল কাদের লাবু,ঠাকুরগাও জেলার রফিকুল ইসলাম ও বকুল রানী,ওবাইদুল হক,সাহিনুর,লিপি বিশ্বাসসহ অন্যরা জানান- মানিক চন্দ্র বর্মন শুধু স্বপ্নতরী এগ্রোসার্ভিসেসই নয় অনুমতি না নিয়েই করছেন মাইক্রোকেডিট ব্যবসা, খুলেছেন একটি স্কুলও। অথচ সবই পরিচালিত হচ্ছে প্রকাশ্যেই এবং প্রশাসনের নজরের মধ্যেই। তারা অবিলম্বে মানিক চন্দ্রকে গ্রেফতার এবং টাকা ফেরত পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবী করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য