দিনাজপুর সংবাদাতাঃ কবি সুফিয়া কামালের ১০৮ তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২০ জুন বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে কবি সুফিয়া কামালের ১০৮ তম জন্মদিন উপলক্ষে বিকাল ৪টায় জেলা কার্যলয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি কানিজ রহমান। উক্ত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন মহিলা পরিষদ, দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ড.মারুফা বেগম।

তিনি বলেন, কবি সুফিয়া কামাল ছিলেন স্বশিক্ষিত, নির্মোহ, নির্ভীক, আপোষহীন, প্রতিবাদী, সত্যদ্রষ্টা, মানবদরদী, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক মুক্ত বুদ্ধি সম্পন্ন এক জাগ্রত অগ্রসর পথিক। তিনি দেশ ও জাতির কল্যাণে কোন প্রকার ষড়যন্ত্র ও অশুভ কথায় মাথা তুলে দাড়িয়েছেন এবং দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

সমাজকে জাগিয়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে শুরু হয় সুফিয়া কামালের ক্লান্তিহীন পথ চলা। নারীর এই জাগরণে এই এগিয়ে আসার পথ যারা একদিন পাথর কেটে তৈরী করেছেন তাদের অন্যতম প্রধান ব্যক্তিত্ব কবি সুফিয়া কামাল।

তাই তিনি আমাদের জননী সাহসিকা। বর্তমান বাংলাদেশের রাজনৈতিক অস্থিতরতা, গণতন্ত্রের সুযোগে খুন, গুম, ধর্ষণ নির্যাতনসহ নানা অসামঞ্জস্যতা,সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার বিপরীতে অন্য ধর্মাবলম্বীদের হত্যা, জমি দখল,বন বিনষ্ট,পানি দূষণ ও বিদ্যুত অপচয়ের বাংলাদেশে এই অভিভাবকের বড় বেশি প্রয়োজন ছিল। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, দিনাজপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি অর্চনা অধিকারীর লিখিত প্রবন্ধ বেগম সুফিয়া কামালঃ নারী মুক্তি ও সমাজ প্রগতি অনন্যা দিশারী পাঠ করেন সহ-সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা সানু ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মহিলা পরিষদ, দিনাজপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি নুরুননাহার, মিনতী ঘোষ, অর্চনা অধিকারীর, অর্থ সম্পাদক রতœা মিত্র,সাংগঠনিক সম্পাদক রুবিনা আকতার, লিগ্যালএইড সম্পাদক জিন্নুরাইন পারু, প্রচার সম্পাদক জেসমিন আরা, সদস্য গোলেনুর, জরিনা, আয়শা, অনামিকা পান্ডে, শুক্লা কুন্ডু, নাজমা বেগম, রেহেনা বেগম,শিবানী উড়াও ও পাড়াকমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক রুবিনা আকতার।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য