সূর্যের চড়া আলোর নিচে বেশিক্ষণ থাকা, অত্যধিক ধূমপান, শুষ্ক ত্বক, স্ট্রেস, দূষণ, ঘুমের অভাব ইত্যাদি কারণে ত্বকে তাড়াতাড়ি বলিরেখা পড়ে, এ বিষয়টি বহু আলোচিত। কিন্তু রাতের সাত-আট ঘণ্টা ঘুমের সময় যদি আপনি ভুলভাবে শোওয়ার অভ্যেস তৈরি করে ফেলেন, তা হলেও কিন্তু বলিরেখা পড়তে পারে সময়ের আগেই – এ বিষয়টি কি আগে ভেবে দেখেছেন?

হিসেবটা খুব সোজা, আমরা সারা দিনের কাজকর্ম সেরে রাতে বিছানায় যখন ঝাঁপ দিই তখন আরাম ছাড়া অন্য কিছু মাথাতেই আসে না। অনেকেরই অভ্যেস থাকে উপুড় হয়ে বালিশে মুখ গুঁজে ঘুমানোর। কেউ কেউ একপাশ ফিরেই সারাটা রাত কাটিয়ে দেন।

বালিশের ওয়াড় যদি সুতির হয়, তা হলে তা আপনার কোমল ত্বকের সঙ্গে ঘষা খেতে থাকে বারবার। সেই সঙ্গে এয়ার কন্ডিশনারও চলে নিশ্চয়ই? তাতে ত্বক আর্দ্রতাও হারাতে আরম্ভ করে। প্রত্যেকদিন টানা সাত-আট ঘণ্টা এমনটা হতে থাকলে যে বলিরেখা পড়তেই পারে, সে বিষয়ে কি আপনার কোনও সন্দেহ আছে?

এই পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে হলে সবার প্রথমে শোওয়ার ভঙ্গি বদলান। একটু উঁচু বালিশে সোজা হয়ে শোওয়ার চেষ্টা করুন। দু’টি বালিশের ফাঁকে বা হাতের মধ্যে মুখ গুঁজে শোবেন না। স্যাটিন বা সিল্কের বালিশের ওয়াড় ব্যবহার করতে পারলে খুব ভালো হয়। রাতে শোওয়ার আগে অবশ্যই এমন কোনও ক্রিম মাখবেন যা আপনার ত্বককে আর্দ্র ও টানটান রাখবে। ভার্জিন নারকেল তেল কিন্তু ময়েশ্চরাইজ়ার হিসেবে খুব ভালো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য