বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ বীরগঞ্জে ১৭ জুন দুপুরে নানা বাড়ীর শোওয়ার ঘরে স্কুল ছাত্রী (নাতনী)’র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

বীরগঞ্জ থানা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের বড় শীতলাই গ্রামের শহিদুল ইসলামের নাতনী দেলওয়ারা আক্তার (১৫) শিশুকাল থেকে নানার বাড়ীতেই লেখাপড়া করছিল। বর্তমানে সে ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী ঘটনার দিন ও সময়ে সকলের চোখকে ফাঁকি শোওয়ার ঘরে ঢুকে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

প্রতিবেশী এক বান্ধবী দেলওয়ারার সাথে দেখা করতে এসে তাকে খুজতে গিয়ে শেওয়ার ঘরের দরজা বন্ধ দেখে ফুকা দিয়ে দেখতে পায় সে ফাঁসিতে ঝুলছে।

সংবাদ পেয়ে থানার এসআই আমজাদ হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল লিপিবদ্ধ করে। কাহারো কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের জন্য স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেলওয়ারা আক্তার পার্শ্ববর্তী ভোগনগর ইউনিয়নের মাঝবোয়াল গ্রামের দেলওয়ার হোসেনের মেয়ে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য