লালমনিরহাটে জমি নিয়ে সংঘর্ষে লাকী খাতুন(১৫) নামে এক স্কুল ছাত্রী নিহত হয়েছে। সংঘর্ষে বাবা মাসহ আরো ৩জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ৫ জনকে আটক করেছে।

সোমবার(১৭ জুন) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে লালমনিরহাট সদর উপজেলার কলাঘাট ইউনিয়নের শীবেরকুটি গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
নিহত স্কুল ছাত্রী লাকী খাতুন ওই গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে এবং সে স্থানীয় চর কুলাঘাট উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেনির ছাত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কুুলাঘাট ইউনিয়ন পরিষদের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য দুলালী বেগমের স্বামী একরামুল হক একরার সাথে প্রতিবেশী নিহত লাকীর বাবা নজরুল ইসলামের জমি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। সেই জমি নিয়ে আদালতে একাধিক মামলাও বিচারাধিন রয়েছে। সোমবার সকালে কিছু ভারাটে লোক নিয়ে সেই জমি দখলে নিতে যান একরামুল হক একরা।

এ সময় জমি দখলে বাঁধা দিলে নজরুল ইসলামের উপর দেশীয় অস্ত্রে হামলা চালায় একরামুলের ভারাটে লোকজন। এ সময় বাবাকে বাঁচাতে এসে হামলার শিকার হন স্কুল ছাত্রী লাকী এবং তার মা কুলসুম বেগম(৩৯) ও ফুফু সমর্থ বানু(৪০)। পরে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় ৪জনকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা স্কুল ছাত্রী লাকীকে মৃত ঘোষনা করেন। বাকী আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সদর থানা পুলিশ সন্দেহজনক ৫জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

লালমনিরহাট সদর থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ(ওসি) মাহফুজ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় আটক ৫জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞসাবাদ করা হচ্ছে। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য