ভারতের বিহার রাজ্যে শনিবার তীব্র দাবদাহে ৪৫ জনের বেশি মানুষ মারা গেছে। রাজ্যটির আওরঙ্গাবাদ, গয়া ও নাওয়াদা জেলায় অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

এদের মধ্যে আওরঙ্গাবাদ জেলায় সবচেয়ে বেশি ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর পাশাপাশি হিট স্ট্রোকে গয়ায় মারা গেছেন ১৩ জন। নওয়াদা জেলায় মৃত্য হয়েছে ১২ জনের।

আওরঙ্গাবাদের সরকারি একটি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সুরেন্দ্র প্রাসাদ সিংয়ের বরাত দিয়ে এনডিটিভির খবরে বলা হয়, এ জেলায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। বিভিন্ন হাসপাতালে অনেক লোক চিকিৎসাধীন আছে। যারা মারা গেছেন সেইসব লোক উচ্চ-তাপমাত্রাজনিত জ্বরে ভুগছিলেন।

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার মৃতদের প্রত্যেকের পরিবারকে চার লাখ রুপি করে সহায়তার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হার্শ বর্ধন বলেন, ‘এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। উচ্চ তাপের কারণে এই মানুষগুলোর মৃত্যু হয়েছে। আমি পরামর্শ দিচ্ছি যে, তাপমাত্রা না কমা পর্যন্ত বাড়ি থেকে কেউ বের হবেন না।’

উত্তর ভারতের চারটি শহর, রাজধানী দিল্লি, রাজস্থানের চুরু এবং উত্তর প্রদেশের বানডা ও এলাহাবাদের তাপমাত্রা ৪৮ সেলসিয়াস ছাড়িয়ে গেছে। এরআগে চলতি মাসের ২ জুন চুরুতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৫০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য