নীলফামারীর ডোমার উপজেলার হরিণচড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার কয়েক দফায় প্রায় অর্ধশতাধিক গাছ কেটে সাবাড় করেছে প্রভাবশালীরা।

শনিবার সকালে হরিণচড়া ইউপি ভবন হতে বুড়িহাট যাওয়ার রাস্তায় পশ্চিম শেওটগাড়ি ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় বাসিন্দা মো. বাবলু ইসলাম রাস্তার গাছ কাটার সময় ১৫টি গাছ আটক করে ইউপি চেয়ারম্যান।

হরিণচড়া ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম জানান, কয়েক দফায় আমার ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার প্রায় অর্ধশতাধিক গাছ কিছু অসাধু ব্যক্তি কেটে নেয়। আমরা ইউপি কর্তৃপক্ষ গাছ চুরি রোধে নজরদারি বাড়িয়ে দেই।

শনিবার সকালে পশ্চিম শেওটগাড়ি ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় রাস্তার গাছ কাটা হচ্ছে খবর পেয়ে গাছগুলো আটক করে চৌকিদার পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান আরো জানান, এর আগেও বাবলু ইসলামের বিরুদ্ধে গাছ কাটার অভিযোগ রয়েছে।

অভিযুক্ত বাবলু ইসলাম গাছ কাটার কথা অস্বীকার করে বলেন, রাস্তার পাশে আমার জমি। ওই গাছগুলো আমার জমির উপর আছে। তাই আমি গাছগুলো কেটেছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে ফাতিমা জানান, গাছগুলো আটক করা হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যানকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য