মোমের মতো পালিশ, উজ্জ্বল, দাগহীন ত্বক আর ক’জন স্বাভাবিকভাবে পান? তাঁদের জন্যই তো ফাউন্ডেশন নামের প্রডাক্টটির উদ্ভব হয়েছে! ত্বকের ছোটখাটো ত্রুটি, দাগছোপ ঢেকে মুখ তরতাজা উজ্জ্বল করে তুলতে ফাউন্ডেশন খুবই কাজের। সেজন্যই মেকআপ সরঞ্জামের মধ্যে সবচেয়ে বেসিক প্রডাক্ট হল ফাউন্ডেশন। আর এমন জরুরি প্রডাক্টটি ব্যবহার করার সময়ও সাবধান হতে হবে।

চোখ বুলিয়ে জেনে নিন কীভাবে ফাউন্ডেশন পরলে নিখুঁত দেখাবে আপনার ত্বক।

মুখ দেখান, মুখোশ নয়
যাঁদের ত্বকের আসল রঙে জায়গায় জায়গায় হেরফের আছে, তাঁদের ইভন স্কিন টোন দিতে পারে ফাউন্ডেশন। কিন্তু ফাউন্ডেশন পরার পর যদি মনে হয় একটা সম্পূর্ণ অন্যরকম স্কিন টোন দেখাচ্ছে, তা হলে বুঝতে হবে আপনার ফাউন্ডেশন পরায় গণ্ডগোল আছে। মুখ ফাউন্ডেশন দিয়ে পুরু করে ঢেকে ফেলবেন না, তাতে মনে হবে আপনি মুখোশ পরে আছেন।

সঠিক শেড বেছে নিন
ফাউন্ডেশনেক সঠিক শেডটি বেছে নেওয়ার জন্য নিজের ত্বকের আন্ডারটোন সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা থাকা দরকার। দিনের বেলা পরিষ্কার আলোয় শেডের রং বেছে নিন। মুখের দু’পাশে চিবুকের হাড়ে শেডটি লাগিয়ে পরখ করুন।

সঠিক ফরমুলা বাছাই জরুরি
ফাউন্ডেশন কেনার আগে নিজের ত্বকের ধরনের ব্যাপারে সচেতন থাকবেন। এক এক ফরমুলার ফাউন্ডেশন এক এক ধরনের ত্বকের পক্ষে উপযোগী। ত্বকের সঙ্গে মানানসই ফাউন্ডেশনই বাছুন।

তাড়াহুড়ো করবেন না
ফাউন্ডেশন কেনা কঠিন নয়, কিন্তু সময়সাপেক্ষ। হাতে সময় নিয়ে ফাউন্ডেশন কিনুন। আর কিনে ফেলার আগে অবশ্যই স্যাম্পেল প্যাক চেয়ে নিন। স্যাম্পল ব্যবহার করে সন্তুষ্ট হলে তবেই কিনবেন।
-ফেমিনা

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য