আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল ঠাকুরগাঁও থেকেঃ রাণীশংকৈলে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে এক নতুন ইতিহাস গড়লেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) সোহাগ চন্দ্র সাহা।

প্রভাবশালী ও স্থাণীয় নেতৃবৃন্দের অপশক্তির বিপক্ষে এমন পদক্ষেপ কেউ গ্রহণ না করার ফলে কয়েক একর জমিতে থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা সম্ভব হয়নি। সকল বাধা বিপত্তি উপেক্ষা করে দৃঢ় হস্তক্ষেপে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে নতুন ইতিহাস গড়ে তুললেন এই এসি ল্যান্ড।

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ হাটস্থ সরকারি খাস জমিতে অবৈধভাবে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

গত সোমবার সকাল ১০টা থেকে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়ে চলমান রয়েছে। তবে পুরো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে আরো দুই তিন সময় লাগবে বলে প্রশাসনিক সুত্রে জানা যায়।

নেকমরদ এলাকার সাধারণ মানুষ’র অভিযোগে বলা হয় হাটের জমিতে দীর্ঘদিন থেকে অবৈধ স্থাপনা তৈরী করে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা দখল করে রাখছিল। যা অবৈধ দখলমুক্ত করা হচ্ছে। এতে সাধারণ মানুষের মনে স্বস্তির নিশ্বাস বইছে।

এ সময় অবৈধ উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন অমিত কুমার সাহা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট , ঠাকুরগাঁও ও সোহাগ চন্দ্র সাহা , সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাণীশংকৈল। সোহাগ চন্দ্র সাহা আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন ৬/১৮-১৯ ঠাকুরগাঁও এবং ৪১/১৮-১৯ রাণীশংকৈল আদেশের আওতায় ৪৪৬ দাগের ৬৬শতাংশ , ৪৪৭ দাগের ৫৬ শতাংশ ও ৪৫২ দাগের ১.৩৫ শতাংশ জমিতে অবৈধ্য স্থাপনা উচ্ছেদ কার্যক্রম চলমান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য