দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের খানসামায় বোরো ধানের বাম্পার ফলন পেয়েও ধানের দাম না থাকায় কৃষকের মুখে হাসি নেই। কেননা কৃষকের হাতে বাড়তি নগদ অর্থ নেই।

আর হাতে টাকা না থাকায় কৃষক পরিবারের সদস্যরা আশানুযায়ী ঈদের কেনাকাটা করতে পারছে না। সে কারণে ঈদের আনন্দ নেই কৃষকের পরিবারগুলোতে।

ঈদ আসার আগেই ধানের বাম্পার ফলন দেখে মহাখুশি হয়েছিল পরিবারের সদস্যরা। আশা ছিল এবার ধান বিক্রি করে ভালো অর্থ মিলবে। ঈদ পালনও ভালোভাবেই হবে কিন্তু দাম না থাকায় আশায় গুড়েবালি হয়েছে। অথচ আর কয়েকদিন পর ঈদ। কিন্তু ধান ধানের দর পতন হওয়ায় ঈদের কেনাকাটা নিয়ে ভেঙে পড়েছেন অধিকাংশ কৃষক।

বাজারে ধানের মূল্য পড়ে যাওয়ায় ঈদের বাজারে কৃষক পরিবারের সদস্যদের আনাগোনা কম যারা কেনাকাটা করছেন তাদের বেশীরভাগই সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী ও বিত্তশালী পরিবার।

এই এলাকার মানুষ কৃষি নির্ভর হওয়ার এবার ধানের দাম কম থাকায় কেনাকাটায় তেমন আগ্রহ নেই কৃষকদের বলে জানান বালাপাড়া গ্রামের কৃষক লিটন ।

এ কারণে বাজারে ক্রেতা ও বিক্রি গত বছরের চেয়ে কম বলে জানান উপজেলার বাণিজ্যিক প্রাণকেন্দ্র পাকেরহাটের কাপড় ব্যবসায়ী দিলীপ রায় ও সেমাই বিক্রেতা জান্নাত। তারা আরও বলেন, প্রতিবছর ঈদে ব্যবসা করে মহাজনদের দেনা-পাওনা মেটাই। এবার মহাজনদের পাওনা শোধ করা সম্ভব হবে না।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য