রংপুর নগরীর আলমনগর খেড়বাড়ী গ্রামের ৫ বছরের শিশু আশিককে অপরহণ করে মুক্তিপণ দাবি ও হত্যার হুমকির অভিযোগের ভিত্তিতে সাড়াশি অভিযান চালিয়ে নীলফামারীর সৈয়দপুর থেকে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে শিশু অপরণ চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত শিশুটিকেও উদ্বার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন,নীলফামারীর সৈয়দপুরের কয়াগোলারহাট বসুনিয়াপাড়ার উমালু জাকিরের ছেলে শাহিন মিয়া (২০) ও একই উপজেলার পুর্ব বেলপুকুর পাকাধারা গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে রনি ইসলাম (২৫) সোমবার দুপুরে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কমিশনার আবদুল আলীম মাহমুদ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মলনে তিনি বলেন, গত ১ জুন শনিবার সন্ধ্যায় নগরীর তাজহাট থানার আলমনগর খেড়বাড়ি গ্রামের কালু মিয়া ৫ বছর বয়সী ছেলে আশিক নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজা খুজি করে তাকে না পেয়ে পিতা কালু মিয়া বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামীয় ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

এরইমধ্যে অপহরণকারী চক্র শিশুটির পিতার কাছে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন। টাকা না দিলে ওই শিশুকে হত্যা করারও হুমকি দেয়া অপহরণকারী চক্র। এদিকে মামলার পরেই পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধারে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে। পরে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে নীলফামারীর সৈয়দপুরের মোজার মোড়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে। এ সময় অপহরণ চক্রের দুই সদস্যকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা শিশু অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অপরাধে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। সংবাদ সম্মেলনে রংপুর মেট্রো পুলিশের উপকমিশনার (অপরাধ) শহিদুল্লাহ কাওসার, সহকারী কমিশনার (কোতয়ালী জোন) জমির উদ্দিন, তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান রোকন প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য