দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় জরাজীর্ণ বেইলী সেতু’র স্থলে নতুন ব্রীজ নির্মানের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন ঘটালেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল। আর এই ব্রীজের ভিত্তি প্রস্তর ফলক উম্মোচনের মাধ্যমে কাহারোল উপজেলাবাসীর দীর্ঘ দিনের আকাঙ্খা, দীর্ঘ দীনের স্বপ্ন ও প্রানের দাবী পুরণ হতে যাচ্ছে। কাহারোল উপজেলাবাসীর মুখে এখন হাসি ফুটেছে। এই ব্রীজ নির্মাণ এর ফলে কাহারোল উপজেলাসহ পাশাপাশি আরো ৩ উপজেলা বীরগঞ্জ, বোচাগঞ্জ ও বিরল উপজেলাবাসীর যোগযোগ ব্যবস্থার দুর্ভোগ লাঘব হবে।

২ জুন রোববার বেলা ১২টায় প্রধান অতিথি হিসেবে জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল কাহারোল উপজেলার সদর সংলগ্ন পুনর্ভবা নদীর উপর ৪৯ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১১২ মিটার ব্রীজ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্থর ফলক উম্মোচন করেন।

কাহারোল বাজারে উপজেলা প্রশাসন এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগ দিনাজপুর এর আয়োজনে মহাসড়কের উন্নতীকরণ কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মনোরঞ্জন শীল গোপাল। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুস্থ থাকলে দেশ সুস্থ থাকবে। তাঁর নেতৃত্বে দেশে যে উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে তার ছোয়া কাহারোলবাসীও পেয়েছে। এই উপজেলায় একটিও বাশের সাকো নেই।

তিনি বলেন, আগামী ৫ বছরে সমস্ত কাচা রাস্তাগুলো পাকা করা হবে। ইতিমধ্যে কাহারোল উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। আগামী ৩ মাসের মধ্যে বীরগঞ্জ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হবে। তিনি বলেন, এই প্রকল্পে কাহারোল থেকে বীরগঞ্জ মোড় পর্যন্ত সাড়ে ৯ কিলোমিটার রাস্তা ১২ মিটার থেকে ১৮ মিটার প্রশস্থ করা হবে।

কাহারোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাসিম আহমেদ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মো. আব্দুল মালেক সরকার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মামুনুর রশিদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম ফারুক, দিনাজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশীল সুনীতি চাকমা।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জাকির হোসেন এর সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কাহারোল থানার ওসি মো. আইয়ুব আলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাফিজুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজেন্দ্র দেবনাথ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ঈদয় চন্দ্র রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. মৌসুমি আখতার প্রমুখ।

এদিকে কাহারোল উপজেলার বিক্রমপুর গ্রামের টুডু হাসদা বলেন, ‘কাহারোল বাজারের কাছত নয়া পুল হইলে এলাকার মাইনসের অনেক উপকার হইবে। হাসিনা সরকার আছে দেখেই হামার এলাকায় অনেক উন্নয়ন হছে’।

পুনর্ভবা নদীর উপর কাহারোল সেতুর নির্মাণ ও কাহারোল-বীরগঞ্জ উপজেলা মহাসড়কের উন্নয়ন কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন ও আলোচনা সভায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য