ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভের পর দ্বিতীয় দফায় সরকার গঠন করেছে বিজেপি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথ নেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও তার মন্ত্রিসভার সদস্যরা। আর এমন সময়েই আবারও হ্যাক করা হয় দলটির ওয়েবসাইট। সেই সঙ্গে সাইটে পোস্ট করা হয় ছবিসহ গরুর মাংসের ছয়টি রেসিপি।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম গুলোতে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, হ্যাক হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই বন্ধ করে দেওয়া হয় ওয়েবসাইটটি। পরে দিল্লি বিজেপির ওয়েবসাইটকে বিজেপি ইন্ডিয়া ওয়েবসাইটে রি-ডিরেক্ট করে দেওয়া হয়। এর আগে নির্বাচনের কিছিদিন আগেও হ্যাক করা হয়েছিল বিজেপির ওয়েবসাইট। তখন বেশ কয়েকদিন বন্ধ ছিল ওয়েবসাইটটি।

এদিকে বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক হওয়ার বিষয়টি প্রথম নজরে আনেন ফরাসি সাইবার নিরাপত্তা গবেষক ইলিয়ট এল্ডারসন। নিজের হ্যান্ডলে একটি টুইটে তিনি লেখেন, ‘ডিয়ার @ BJP4India, আপনাদের ওয়েবসাইট হ্যাক হয়েছে। এবার ওয়েবসাইট রিস্টোর করতে কতদিন লাগবে?’ এর কিছু পরেই অপর একটি টুইটে তিনি বলেন, ‘জানতাম না বিজেপি মানে বিফ জনতা পার্টি?’

উল্লেখ্য, বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে গরু নিয়ে বিভিন্ন গুজব তুলে মুসলিমদের ওপর হিন্দুত্ববাদী নিপীড়ন-নির্যাতন ও হত্যাকাণ্ড শুরু হয়। ২০১৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বরে ভারতের উত্তর প্রদেশের দাদরি এলাকায় গরুর মাংস সংরক্ষণের গুজবে মোহাম্মদ আখলাককে পিটিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসী। এর ধারাবাহিকতায় এখনও সেখানে গরুকে হিন্দুত্ববাদী অস্ত্র বানিয়ে মুসলিম নিপীড়ন অব্যাহত রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য