হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টে দানিয়ুব নদীতে নৌকা ডুবে অন্তত সাত জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ১৯ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

বার্তা সংস্থা এমটিআই জানিয়েছে, নৌকাটিতে ৩৩ জন লোক ছিলেন যাদের অধিকাংশই দক্ষিণ কোরীয় পর্যটক। নৌকাটি নোঙ্গর করার সময় অন্য একটি জলযান নৌকাটিকে আঘাত করলে এটি ডুবে যায়।

বুধবার স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

গত কয়েকদিনের ভারি বৃষ্টিপাতে পর্যটকদের প্রিয় গন্তব্যস্থল দানিয়ুব নদীর পানি ফেঁপে তীব্র স্রোত তৈরি হয়েছে।

ডুবে যাওয়া নৌকাটির নাম ‘হাবলেয়ানি’ বা ‘মৎসকুমারি’ ছিল বলে শনাক্ত করা হয়েছে। দুই ডেকের এই নৌকাটিতে ৪৫ জন লোক একসঙ্গে বসে নৌভ্রমণ উপভোগ করতে পারতেন।

এ ঘটনায় ১৯ কোরিয়ান নিখোঁজ বলে নিশ্চিত করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দেশটির সরকার কর্মকর্তাদের একটি দলকে হাঙ্গেরিতে পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে বলে জানিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবারের প্রথম প্রহর থেকে নদীর ভাটির দিক বরাবর কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে বড় ধরনের একটি উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়েছে। অভিযানে বহু নৌকা, ডুবুরি, স্পটলাইট ও রাডার স্ক্যান ব্যবহার করা হচ্ছে।

উদ্ধারকারী দল সতর্ক করে জানিয়েছে, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে তীব্র স্রোত ডুবে যাওয়াদের আরও দূরে নিয়ে যেতে পারে, তাতে জীবিত কাউকে খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে যাবে।

দেশটির জাতীয় অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস বুদাপেস্টের কেন্দ্রস্থল থেকে দানিয়ুবের ভাটির দিকে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করছে। বুদাপেস্ট থেকে দানিয়ুবের দক্ষিণ দিকের পুরো অংশজুড়ে নৌ-চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য