দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরুজুল ইসলাম অবৈধভাবে নির্মিত ইট ভাটা স্থাপনা উচ্ছেদ করেছেন।

গ্রামবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে ২৯ মে বুধবার দুপুরে সদরের আউলিয়াপুর ইউনিয়নের ঘুঘুডাঙ্গা গ্রামে অবৈধভাবে নির্মিত ইট ভাটা স্থাপনা ভেঙ্গে দেন তিনি। এসময় উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মামুন হাসান চৌধুরী, কোতয়ালী থানা পুলিশ ফোর্সসহ গ্রামবাসীরা সহযোগিতায় ছিলেন।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরুজুল ইসলাম জানান, বহুদিন যাবত অসংখ্য গ্রামবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে সামাজিক বনায়ন ও ইরি স্কীমের জন্য হুমকিস্বরূপ অবৈধভাবে নির্মিত ইট ভাটাটি ভেঙ্গে দেয়া হয়। ভাটার মালিককে অতিশীঘ্রই আইনের আওতায় এনে মামলা দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, গ্রামবাসীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ২০ মার্চ ২০১৯ তারিখে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় উক্ত অবৈধ ইট ভাটা ভেঙ্গে ফেলা হয়। কিন্তু নতুন করে উক্ত ইট ভাটা পুনর্নিমিত হলে গ্রামবাসীর অভিযোগে আবারও ভেঙ্গে ফেলার অনুমতি দেন জেলা প্রশাসক।

উল্লেখ্য, সদর উপজেলা ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের ঘুঘুডাঙ্গা গ্রামের মুনছুর উদ্দীন চৌধুরী ও এমাজ উদ্দীন চৌধুরীর জমিতে শহরের ঈদগাহ বস্তী নিবাসী মোহাম্মদ আলীর পুত্র মহসীন আলী অবৈধভাবে উক্ত ইট ভাটা নির্মান করেছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য