দিনাজপুর সংবাদাতাঃ মা ও শিশুমৃত্যু রোধে এবং তাদের স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি অসুস্থতার বিষয়ে সচেতন করার পাশাপাশি মাতৃমৃত্যু রোধে দিনাজপুরেও নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উদযাপন উপলক্ষে নিরাপদ মাতৃত্বকে নারীর অধিকার হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে মা ও নবজাতকের মৃত্যুরহার কমিয়ে আনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস পালন করা হয়।

২৮ মে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সমাজকল্যান উপ-পরিষদের উদ্যোগে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উপলক্ষ্যে দিনাজপুর মহিলা পরিষদের সহ-সভাপতি মাহবুবা খাতুন এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ড. মারুফা বেগম।

নারীর স্বাস্থ্য সমস্যা বিষয়ে আলোচনা করেন ডা: অনন্যা জ্যোতি আহমেদ । তিনি বলেন, নারীর স্বাস্থ্যের দিকটির প্রতি বিশেষ গুরুত্ব না দিলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম সুস্বাস্থ্য নিয়ে জন্মাবে না। গর্ভবতী মায়েরা সমাজে একটি ঝুকিঁপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। মাতৃস্বাস্থ্য ঝুকিঁমুক্ত করতে হলে শুধু নারীকেই সচেতন হলে চলবেনা।

পাশাপাশি পুরুষ সমাজকেও সচেতন হতে হবে। স্বাস্থ্যনীতি তথা প্রজনন স্বাস্থ্যের খাতে সরকারের আসন্ন বাজেটে অর্থ বরাদ্দ থাকছে কিনা সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে। এছাড়াও তিনি বলেন, একজন সুস্থ্য মা একজন সুস্থ্য শিশুর জন্ম দিতে পারে। আর সেজন্য প্রয়োজন সচেতনতা ও মানসিকতার পরির্বতন।

সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সহ-সভাপতি মিনতি ঘোষ, অর্চনা অধিকারী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা সানু, অর্থ সম্পাদক রতœা মিত্র, লিগ্যালএইড সম্পাদক জিন্নুরাইন পারু, আন্দোলন সম্পাদক গৌরী চক্রবর্তী, প্রশিক্ষন সম্পাদক রুবি আফরোজসহ জেলা ও পাড়া কমিটির সদস্যবৃন্দ।

বক্তারা বলেন, নিরাপদ মাতৃত্ব নারীর জীবনে বড় একটি সমস্যা এবং জীবনের ঝুঁকি। আমাদের দেশে মাতৃত্বজনিত কারণে প্রতিবছর অনেক মা অকালে মারা যাচ্ছেন। তাই নারীকে সচেতন না হলে এই ঝুঁকি কাটিয়ে উঠা সম্ভব নয়। সেজন্য নারীকে শিক্ষিত ও সচেতন হতে হবে। বাল্য বিবাহ বন্ধ করতে হবে। নিরাপদ স্বাস্থ্য বতর্মান প্রজন্ম ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মকেও সুস্বাস্থ্যের অধিকারি করতে হবে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন সমাজকল্যাণ সম্পাদক শাহানাজ পারভীন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য