লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা পূনম চাঁদ ভুতোরিয়া কলেজে যুবলীগ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম সুইটের ঠিকাদারী কাজ বন্ধ করে দিয়েছে ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২৬ মে) বেলা ১১টার দিকে ওই কলেজে ৪র্থ তলা ভবন নিমার্ণে অনিয়মের অভিযোগ তুলে মানব বন্ধন শেষে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয় শিক্ষার্থী।

পাটগ্রাম উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম সুইট মোসার্স বেলাল কনস্ট্রাকশনের কাছ থেকে ওই ঠিকাদারী কাজটি ক্রয় করে দেন বলে জানা গেছে। তবে কাজে অনিয়মের অভিযোগ মিথ্যাচার দাবী করে রাশেদুল ইসলাম সুইট বলেন, নিয়ম মেনেই কাজ করা হচ্ছে। কাজটি শুরু থেকে অহেতুক বাধা দিয়ে আসছে কলেজের লোকজন ও শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, জেলার পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা পূনম চাঁদ ভুতোরিয়া কলেজে শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদপ্তরের আওতায় ৪র্থ তলা একটি ভবন নির্মাণ হচ্ছে। ভবনটি নির্মাণের দায়িত্ব পায় মোসার্স বেলাল কনস্ট্রাকশন নামে একটি ঠিকদারী প্রতিষ্ঠান। ওই প্রতিষ্টানের নিকট থেকে কাজটি ক্রয় করেন পাটগ্রাম উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম সুইট। কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, কাজটি শুরু থেকে অনিয়ম হচ্ছে। নিম্নমানে ইট, বালু, সিমেন্ট, রড় ব্যবহার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করলেও কাজে অনিয়ম বন্ধ হয়নি। ফলে রোববার সকাল ১১টার দিকে ওই কলেজের ৪র্থ তলা ভবন নিমার্ণে অনিয়মের অভিযোগ তুলে কলেজ এলাকায় মানব বন্ধন শেষে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয় শিক্ষার্থীরা।

তবে পাটগ্রাম উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রাশেদুল ইসলাম সুইট ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, নিয়ম মেনেই কাজ হচ্ছে। কাজটি শুরু থেকে অহেতুক বাধা দিয়ে আসছে কলেজের লোকজন। কলেজের প্রতিষ্ঠাতার দোকান থেকে সিমেন্ট ও রড় ক্রয় না করায় মিথ্যা অভিযোগ তুলে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

কলেজের অধ্যক্ষ মোস্তফিজার রহমান বসুনিয়া ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, শুরু থেকেই ভবন নির্মানে ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে। কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করলেও কাজে অনিয়ম বন্ধ হয়নি। ফলে মানব বন্ধন শেষে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয় শিক্ষার্থী।

কুড়িগ্রাম শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, অনিয়মের অভিযোগে শিক্ষার্থীরা কাজটি বন্ধ করে দিয়েছে বলে শুনেছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য