ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জোকো উয়িদোদো পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর রাজধানী জাকার্তায় ছড়িয়ে পড়া সহিংসতায় অন্তত ছয়জনের প্রাণ গেছে।

দাঙ্গায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ অন্তত ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

মঙ্গলবার ইন্দোনেশিয়ার জেনারেল ইলেকশন কমিশন (কেপিইউ) প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ করে। তাতে দেখা যায়, ১৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট উয়িদোদো ৫৫ দশমিক পাঁচ শতাংশ ভোট পেয়ে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক জেনারেল প্রাবোও সুবিয়ান্তো ৪৪ দশমিক পাঁচ শতাংশ ভোট পেয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পড়া মোট ১৫ কোটি ৪০ লাখ ভোটের মধ্যে উয়িদোদো আট কোটি ৫০ লাখেরও বেশি ভোট পান। কিন্তু পরাজিত প্রার্থী সুবিয়ান্তো সংবাদ সম্মেলন করে ব্যাপক প্রতারণার অভিযোগ তোলেন।

সুবিয়ান্তোর হাজার খানেক সমর্থক মঙ্গলবার শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ শুরু করলেও সন্ধ্যার দিকে তা সহিংস রূপ নেয়। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করে।

সহিংসতা চলাকালে পুলিশের মোবাইল ব্রিগেডের আবাসিক অ্যাপার্টমেন্টের সামনে কার পার্কিংয়ে রাখা গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়।

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায়, জাকার্তার কেন্দ্রস্থল তানা আবাং এলাকায় প্রচুর ধোঁয়া উঠছে। রাস্তায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছে আন্দোলকারীরা।

জাকার্তা পুলিশের মুখপাত্র দেদি প্রাসেতিও বলেছেন, তারা অন্তত ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছেন, যারা বিশৃঙ্খলায় উসকানি দিচ্ছিল।

নিরাপত্তা বজায় রাখতে জাকার্তাজুড়ে ৪০ হাজার পুলিশ ও সেনা সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে বলে ইন্দোনেশিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য