আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ কালবৈশাখীর ঝড়ে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের প্যান্ডেল ভেঙে নিহত মুসল্লিদের মধ্যে শফিকুল ইসলাম (৩৫) গ্রামের বাড়ি লালমনিরহাট জেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের বোর্ডঘোড়া এলাকার মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

শুক্রবার (১৭ মে) সন্ধ্যায় ইফতারি শেষে মাগরিবের নামাজ পড়তে গিয়ে দমকা বাতাস ও ঝড়ো বৃষ্টির কবলে পড়ে বায়তুল মোকাররম মসজিদের পশ্চিমপাশে মুসল্লিদের নামাজের অস্থায়ী প্যান্ডেল ভেঙে পড়ে মারা যান তিনি। শফিকুল ইসলাম ঢাকার আলম টায়ার কোম্পানির একজন কর্মচারী।

নিহতের ভগ্নিপতি রাশেদুল ইসলাম জানান, শফিকুল ইসলাম তার দুই ভাইয়ের সঙ্গে ঢাকার আলম টায়ার কোম্পানিতে চাকরি করেন। চাকরির সুবাদে তারা দীর্ঘ দিন ধরে ঢাকায় বসবাস করছেন। ইফতারি শেষ করে মাগরিবের নামাজের জন্য বায়তুল মোকাররমে যান শফিকুল ইসলাম। এ সময় প্রচণ্ড গতিতে ঝড় এলে মসজিদের প্যান্ডেল ভেঙে পড়ে ঘটনাস্থলে শফিকুল ইসলামের মৃত্যু হয়।

শফিকুলের মৃত্যুর খবর জানার পর পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শফিকুলের এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। নিহত শফিকুলের মরদেহ পুলিশ হস্তান্তরকরলে গ্রামের বাড়িতে নেয়া হবে বলেও জানান নিহতের ভগ্নিপতি রাশেদুল ইসলাম।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য