ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের একটি আগ্নেয়গিরিতে মঙ্গলবার অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনা ঘটেছে। এতে ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন পড়েছে দুই হাজার মিটার পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকা। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

মাউন্ট সিনাবাগ নামের ওই আগ্নেয়গিরিটিতে ২০১৬ সালেও একবার ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনা ঘটেছিল। মঙ্গলবারের অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনায় অঞ্চলটির আকাশে বিমান চলাচল বিঘ্নিত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। তবে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে এ সংক্রান্ত কোনও নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অগ্ন্যুৎপাত সম্পর্কে সজাগ থাকার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে এখনও পর্যন্ত সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দাদের এলাকা ছেড়ে যাওয়ার কোনও নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। অবশ্য ওই আগ্নেয়গিরির খুব কাছাকাছি এলাকায় কোনও জনবসতিও নেই। অঞ্চলটিকে ইতোপূর্বে নো গো জোন ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

৪০০ বছর সুপ্ত থাকার পর ২০১০ সালে সক্রিয় হয় মাউন্ট সিনাবাগ। ২০১৪ সালে এখানে অগ্ন্যুৎপাতে ১৬ জনের মৃত্যু হয়। ২০১৬ সালে মারা যান আরও সাতজন।

ইন্দোনেশিয়ার ভৌগোলিক অবস্থান প্রশান্ত মহাসগরের ‘রিং অব ফায়ার’ অঞ্চলে। দেশটিতে ১৩০টি সক্রিয় আগ্নেয়গিরি রয়েছে। আর ‘রিং অব ফায়ার’ অঞ্চলে পৃথিবীর অর্ধেকেরও বেশি সক্রিয় আগ্নেয়গিরির অবস্থান। সূত্র: এনডিটিভি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য