আমেরিকা একটি বিমানবাহী রণতরি নিয়ে গঠিত স্ট্রাইক গ্রুপ বা হামলা-সক্ষম সেনাগোষ্ঠী মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন করেছে। মার্কিন যুদ্ধবাজ জাতীয় উপদেষ্টা জন বোল্টন দাবি করেছেন, তার ভাষায়, ইরানের প্রতি পরিষ্কার এবং নির্ভুল বার্তা দেয়ার জন্য এ দলকে পাঠানো হয়েছে।

বোল্টনের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, হামলা-সক্ষম এ দলে মার্কিন বিমানবাহী রণতরি ইউএসএস আব্রাহাম লিংকন এবং বোম্বার টাস্ক ফোর্স বা বোমাবর্ষণে সক্ষম একটি বিশেষ সেনাগোষ্ঠী রয়েছে।

বোল্টন আরও দাবি করেছেন, আমেরিকার কোনও স্বার্থ বা মিত্রের ওপর যে কোনও ধরণের হামলা হলে তার কঠোর জবাব দেয়া হবে।

অবশ্য, পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, ইরানের সঙ্গে কোনও যুদ্ধ চায় না আমেরিকা; তবে যে কোনও ধরণের হামলা মোকাবেলার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছে। বোল্টন বিস্তারিত ভাবে আর কিছুই জানান নি। কিন্তু আরেক মার্কিন কর্মকর্তা দাবি করেছেন, তার ভাষায়, ইরানি বাহিনী এবং তার সমর্থকদের সম্ভাব্য প্রস্তুতির মুখে আমেরিকা তার বাহিনীকে পাঠিয়েছে। এ সব প্রস্তুতি দেখে মনে হচ্ছে পশ্চিম এশিয়ায় মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে হামলার পায়তারা চলছে।

অবশ্য, মার্কিন সেনাবাহিনীর নিয়মিত কর্মসূচি অনুযায়ীই এ বাহিনীকে মোতায়েন করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে আর এ সুযোগে বোল্টন নিছক কিছু কথাবার্তা বলেছেন মাত্র।

গত মাসের ৮ তারিখে ইউএসএস আব্রাহাম লিংকনের জনসংযোগ বিভাগ থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল যে নিয়মিত মোতায়েনের অংশ হিসেবে ১ এপ্রিল ভার্জিনিয়ার নৌঘাঁটি ছেড়ে যাত্রা করেছে এ রণতরি । কাজেই ‘ইরানের প্রতি পরিষ্কার এবং নির্ভুল বার্তা দেয়ার’ জন্য আব্রাহাম লিংকন মোতায়েনের যে দাবি বোল্টন করেছেন তা যথার্থ নয়। তার এ ঘোষণা দেয়ার আগেই নিয়মিত মোতায়েনের অংশ হিসেবে ইউএসএস আব্রাহাম লিংকন মধ্যপ্রাচ্যের দিকে যাত্রা শুরু করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য