নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় পুলিশ ও বিজিবি যৌথ অভিযান চালিয়ে চোরা পথে আসা ১৩ গরু উদ্ধার করেছে।

ভোরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার গয়াবাড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন ভুট্টা ক্ষেতে লুকিয়ে রাখা ওই গরু গুলো উদ্ধার করা হয়।

এদিকে চোরা পথে আসা ১৬ গরুর মধ্যে ১৩ গরু উদ্ধার হলেও বাকি ৩ গরু পাওয়া যায়নি।

অভিযোগ উঠেছে এলাকার বেশ কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির সহযোগীতায় তিস্তা নদীর ওপারের চর হতে গভীর রাতে ১৬ গরু চোরা পথে এপারে নিয়ে এসে তা ট্রাকে বগুড়া পাচারের চেষ্টা করা হচ্ছিল।

খবর পেয়ে ডিমলা থানার পুলিশ ও ডিমলার ৫১ বিজিবি বানিরঘাট বিজিবি ক্যাম্পের জোয়ানরা যৌথ অভিযান চালিয়ে মতির বাজার সংলগ্ন রাস্তায় ১৩ গরু উদ্ধার করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ নদীর চরের ওপারে ভারতের সীমান্ত গলিয়ে গয়াবাড়ী ইউনিয়নের কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির নেতৃত্বে গরু গুলো নিয়ে আসা হয়।

এ সময় গরুর দুই রাখালকে আটক করে পুলিশ। অন্যান্যরা পালিয়ে যায়।

ডিমলা থানার ওসি মফিজ শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন অবৈধভাবে চোরাপথে ভারতীয় গরু উদ্ধারের বিষয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য