জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে একটি এনজিও’র অফিস থেকে অস্ত্র ঠেকিয়ে প্রায় ১৭ লাখ টাকা লুট হয়েছে। শহরের শহীদ জহুরুল হক সড়কে (বিচালীহাটি) জনৈক চান মিয়ার ভবনের ৩য় তলায় সমিতির অফিসে ২৮ এপ্রিল (রবিবার) সন্ধ্যায় আনুমানিক ৬ টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

সোনালী সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি লিমিটেড নামের এনজিওতে সংঘটিত এ ঘটনাটি প্রকৃতই ডাকাতি না সাজানো নাটক তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এদিকে এ ঘটনার পর সৈয়দপুর শহরে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। কারণ শহরের প্রধান সড়কগুলোর পাশের দোকান থেকে দিন দুপুরে লাখ লাখ টাকা চুরি ও ডাকাতির ঘটনা ঘটছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) অশোক কুমার পাল ও থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহজাহান পাশা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সত্যিকারে কত টাকা লুট হয়েছে বা আদৌ লুটের ঘটনা কিনা তা তদন্ত শেষে জানা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এজন্য রাত ৮টার দিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অফিসের ৪ কর্মচারীকে থানায় নেয়া হয় এবং গভীর রাতে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সিসি ফুটেজ পর্যালোচনা এবং অন্যান্য বিষয় খতিয়ে দেখেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। ঘটনার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সোনালী সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি এমডি ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাজ্জাদ আহমেদ জানান, সৈয়দপুর থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য