দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। দিনাজপুর জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগের সাথে বৈঠকে দিনাজপুর জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের দাবী মেনে নেয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেয় পরিবহন শ্রমিকরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট নিয়ে এক জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম। বৈঠকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন রংপুর বিভাগীয় কমিটির সভাপতি আকতার হোসেন বাদল, দিনাজপুর জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলে রাব্বি, দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় ও নীলফামারী জেলা বাস ও ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে আলোচনার পর জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে উত্থাপিত নিহত বাসচালক জালাল উদ্দিন হত্যাকারীদের গ্রেফতারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ অন্যান্য দাবী মেনে নেয়ার আশ্বাসের প্রেক্ষিতে জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়।

এছাড়া বৈঠকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত বাসচালকের পরিবারকে প্রতি মাসে ৩ হাজার করে টাকা প্রদান, পাঁচশতক জমির উপর একটি পাকা বাড়ী নির্মাণ করে দেয়া, দিনাজপুর পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে নিহত বাসচালকের পরিবারকে এককালিন অনুদান প্রদান, ট্রাফিক পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশসহ পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের সদস্য কর্তৃক পরিবহন শ্রমিকদের অযথা হয়রানী বন্ধের আশ্বাসও প্রদান করা হয়।

বৈঠকের পর দিনাজপুর জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহসভাপতি মো. সাইফর রাজ চৌধুরী মোবাইলে প্রতিনিধিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

উল্লেখ্য, গত ২২ এপ্রিল সোমবার দিবাগত রাতে কোচ নিয়ে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আসার পথে চট্টগ্রামের কর্ণফুলি থানার শিকলবাহা এলাকায় পৌঁছলে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে কয়েকজন লোক নৈশকোচে ৩০ হাজার পিস ইয়াবা আছে এই অভিযোগে বাসচালক নিহত জালাল উদ্দিনকে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে মারধর করে আহত করে রাস্তায় ফেলে রেখে যায়। পরে নৈশকোচের সহকারী রাফিসহ অন্যরা জালালকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত জালাল দিনাজপুর সদর উপজেলার দরবারপুর হেলেঞ্চাকুড়ি গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে এবং শ্যামলী পরিবহনের নৈশ কোচের চালক ছিলেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে দিনাজপুর জেলা মটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন দিনাজপুরে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেয়। এতে চরম বিপাকে পড়েন যাত্রীরা। সন্ধ্যায় প্রশাসনের সাথে বৈঠকের পর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করায় চরম দুর্ভোগ থেকে রক্ষা পায় যাত্রীরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য