শ্রীলঙ্কার কয়েকটি চার্চ ও হোটেলে একযোগে চালানো আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

বুধবার শ্রীলঙ্কা পুলিশের মুখপাত্র রুয়ান গুনাসেকেরা নিহতের সংখ্যা বৃদ্ধির কথা প্রকাশ করলেও বিস্তারিত আর কিছু জানাননি, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

শ্রীলঙ্কার কয়েকটি চার্চ ও হোটেলে একযোগে চালানো বোমা হামলায় নয় আত্মঘাতী অংশ নিয়েছে এবং তাদের একজন নারী ছিল বলে জানিয়েছেন দেশটির একজন মন্ত্রী।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রাভন বিজয়বর্ধনে এসব কথা জানান বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

হামলাকারীদের মধ্যে আট জনকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শাংরি-লা হোটেলে আত্মঘাতী হামলা স্থানীয় কট্টরপন্থি ইসলামি গোষ্ঠীর নেতা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজয়বর্ধনে।

হামলাকারীদের একজন যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও জানান, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯ জনে দাঁড়িয়েছে এবং এদের মধ্যে ৩৯ জন বিদেশি।

রোববারের ওই বোমা হামলায় জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাসে শ্রীলঙ্কা সন্ত্রাসী হামলা সবচেয়ে প্রাণঘাতী বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

এদিকে বুধবার কলম্বোতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, ইস্টার সানডের আত্মঘাতী বোমা হামলার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আগাম কোনো গোয়েন্দা তথ্য না থাকলেও শ্রীলঙ্কায় আরও সন্ত্রাসী হামলার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে বিশ্বাস তাদের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য