দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর শহরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে তাপস কুমার নামে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয়দানকারী এক ভুয়া পুলিশ কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে।

আজ রোববার বিকেল ৫ টার দিকে কোতয়ালী থানার অফিসার্স ইনচার্জ রেদওয়ানুর রহিমের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে।

আটক ভুয়া পুলিশ কর্মকর্তার আসল নাম নাম ইমাম শাহজাদা (৪২)। তিনি ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার দরুন বাজার এলাকার ইউসুফ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ তার কাছ থেকে একটি পাসপোর্ট, ব্যাংকের জমা রশিদ ও চেক বই, নেপালের ক্যাসিনো খেলার আইডি কার্ড, তাপস কুমার লিখা সংবলিত নেমপ্লেট, ভিজিটিং কার্ড, কিছু ওষুধপত্র ও ব্যবহায্য পোশাক উদ্ধার করেছে।

দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকার জানান, দীর্ঘ দিন ধরে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় কন্যাদায়গ্রস্থ পিতাদের সাথে যোগাযোগ করে নিজেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয় দিয়ে মেয়েদেরকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন তিনি।

দিনাজপুরে এক অভিভাবকের সাথে টাকা লেনদেন হবার কথার ভিত্তিতে তিনি দিনাজপুরে এসেছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ একটি আবাসিক হোটেলে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করে।

পুলিশ জানায় আটকৃকত ইমাম শাহজাদা ইতিপূর্বেও দুইবার পুলিশের নিকট আটক হয়েছিলো। তার নামে পূর্বের দুটি মামলা রয়েছে। জেল থেকে জামিনে মুক্তি পাবার পরে সে পুণরায় একই ধরণের কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়। তার নামে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় একটি জালিয়াতি মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য