দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মমতা সরেন নামে আদিবাসী গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তার স্বামী সেরাপিন মার্ডি কে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত মমতা সরেন (৪০) দিনাজপুরের বীরগঞ্জের সাতোর ইউপির প্রাণনগর আদিবাসী পাড়ার স্বামী সেরাপিন মার্ডির স্ত্রী।

আটক স্বামী সেরাপিন মার্ডি বীরগঞ্জের সাতোর ইউপির প্রাণনগর আদিবাসী পাড়ার মৃত ভাঙ্গিমাডির ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে তার বাড়ী থেকে মমতা সরেনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বীরগঞ্জ থানার এসআই দুলাল হক জানান, পারিবারিক কোলহের জের ধরে সোমবার রাতে মমতা সরেনকে বাশের লাঠি দিয়ে এলোপাতারী মারধর করে তার স্বামী সেরাপিন মার্ডি।

মঙ্গলবার সকালে পরিবারের লোকজন মৃত অবস্থায় বিছানায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ মঙ্গলবার দুপুরে তার লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা করেছে।

বীরগঞ্জ থানার ওসি সাকিলা পারভিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় তার স্বামীকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য