মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুরে মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। আহত গৃহবধু শাহানা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সৈয়দপুর পৌর এলাকার বাশবাড়ি শেরে বাংলা রোডে মৃত আব্দুল ওসমানের বড় ছেলে আলামিন তার ভাগের জমিতে বাশের খুটি দিয়ে ঘিরতে যায়। এসময় তার ছোট ভাই নুরে আলম টিটু, তার স্ত্রী আইরিন ও বোন মুক্তা মিলে তাদের উপড় চড়াও হয।

এতে বড় ভাই আলামিনকে মারডাং করে জামা কাপড় ছিড়ে দেয় এবং তার স্ত্রী শাহানা পারভীনের পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয়। বারান্দায় রাখা আসবাবপত্র নষ্ট করে। এলাকাবাসী থানা পুলিশকে খবর দিলে সাবইন্সপেক্টর নুরে আলম ঘটনাস্থল থেকে আহত শাহানাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।

আহত শাহানা জানায়, কিছুদিন আগে দেবর টিটু, তার স্ত্রী আইরিন ও বোন শহীদ জিয়া স্কুলের শিক্ষিকা মুক্তা মিলে আমাকে বেদম প্রহার করে পা ভেঙ্গে দেয়। আজ আবার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। এটা আমার স্বামীর বাড়ী আমি এর ন্যাজ্য বিচার চাই।

আলামীন জানায়, আমার বাবার ১৬ শতক জমি ৫ বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে ভাগাভাগি হয়। এতে আমি ৩ শতক জমি ভাগ পেয়েছি। আমার জমিকে আমাকে থাকতে দেয়া হয়না। আমার দোষ আমি বিহারী মেয়েকে বিয়ে করেছি। আহত শাহানা বেগম সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ব্যাপারে টিটু বলেন জমি নিয়ে কোটে মামলা বিচারাধীন অবস্থায় জমিতে বাশের খুটি পুততে বাধা দিলে উল্টো আলামিন ও তার স্ত্রী আমার উপর আক্রমণ করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য