Dinajpur-14-04-14--------জিন্নাত হোসেনঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, আসুন আমরা শুধু আজকের এই দিনে বাঙালী না হয়ে, মনেপ্রাণে বাঙালী হই। দেশে ও দেশের মানুষ কে ভালবাসি। নিজেরা নিজেদের দায়িত্ব পালণ করি। আমরা হয়ে উঠি ষোলআনায় পরিপুর্ণ। জাগ্রত হোক আমাদের বাঙালী জাতীয়তাবাদ। আমাদের কাজ বৈশাখী উৎসবকে শুধু শহরের আবেগে সীমাবদ্ধ না রেখে একে আধুনিক স্স্কংতির চরিত্র নিরীখে গ্রাম-গ্রামাঞ্চলে পৌছে দেয়া। এতে করে সংখ্যাগোরিষ্ঠ গ্রামীণ সমাজের সঙ্গে শহরের সংস্কৃতির ইতিবাচক যোগসূত্র তৈরীর একটি দরজা খুলে যেতে পারে, যা জাতীয় স্বার্থে অতীব গুরুত্বপুর্ণ । জাতীয় সংস্কৃতি সে ক্ষেত্রে সর্বজনীন চরিত্র নিয়ে দেখা দেবে এবং শহরের সংস্কৃতির সঙ্গে গ্রামীন সংস্কৃতির আত্মীয়করণের সুযোগ ঘটবে। ১লা বৈশাখ সোমবার বড় ময়দানের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে দিনাজপুর বৈশাখী উৎসব পরিষদ আয়োজিত সপ্তাহব্যাপী বৈশাখী মেলার উদ্বোধনী অন্ষ্ঠুানে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।
Dinajpur-14-04-14
ইকবালুর রহিম বলেন, বাঙালী সংস্কৃতি, তার উৎসবে উদার সম্প্রীতি চেতনাকে বিনষ্ট করার জন্য বারবার আঘাত হানা হলেও বাঙালীর উৎসবে মানুষের মহাসম্মেলনকে রুদ্ধ করা যায়নি, যাবেও না। আমার দৃঢ় বিশ্বাস সকল অশুভ তৎপরতার বিরুদ্ধে বৈশাখের  এই জাগ্রত সংস্কৃতি আমাদের শক্তি যোগাবে। শত দুর্বিপাকে, শত বিপর্যয়ে মানুষের  এই হার না মানা সংগ্রাম বৈশাখেরই রুদ্ধ চেতনার বহিঃপ্রকাশ যেন। এই চেতনার কাছে তাবৎ উৎপীড়ক, অশুভ শক্তির পরাজয় ঘটবেই। এই পহেলা বৈশাখে মানবিকতা, অসাম্প্রদায়িকতা আর গণতান্ত্রিক মুল্যবোধে উজ্জ্বীবিত হয়ে আমাদের নতুন শপথে দাড়াতে হবে। একটি সুখী, সমৃদ্ধ ও সম্প্রীতিময় সমাজ আমাদের লক্ষ্য। ১৪২১ বঙ্গাব্দের আজকের এই সুর্যোদয় সব অন্ধকার কেটে আমাদের নিয়ে যাক এমন এক সকালের দিকে যেখানে থাকবেনা প্রতিক্রিয়াশীলতার অন্ধকার, অশিক্ষার অন্ধকার, দারিদ্র আর অনটনের অন্ধকার। ১৪২১ সনকে ঘিরে সমস্ত উৎসব আয়োজন আনন্দময় হোক, নির্বিঘ্ন হোক। নতুন বছর হোক সবার জন্য সুসময়ের উদ্বোধন।

দিনাজপুর বৈশাখী উৎসব পরিষদের আহবায়ক মোঃ সফিকুল হক ছুটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী, জেলা পরিষদের প্রশাসক আজিজুল ইমাম চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন এবং দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ হামিদুল হক, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহবায়ক মির্জা আনোয়ারুল ইসলাম তানু, দিনাজপুর আদর্শ কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ খালেকুজ্জামান, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্ত ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রহমান বকুল, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বৈশাখী উৎসব পরিষদের সদস্য সচিব মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কামরুল হুদা হেলাল। এর পুর্বে সকালে বৈশাখী  উৎসব পরিষদের উদ্যোগে মেলার প্রাঙ্গণ থেকে নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য