ইরান থেকে ইরাক হয়ে সিরিয়া পর্যন্ত সরাসরি রেল যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে তিন দেশের মধ্যে আলোচনা বলছে বলে জানিয়েছে বাগদাদ। সিরিয়া সফররত ইরাকের জাতীয় রেল কোম্পানির প্রধান সালিব আল-হুসাইনি আজ দামেস্কে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে সর্বোচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করতে শিগগিরই তিন দেশের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

পারস্য উপসাগরকে ভূমধ্যসাগরের সঙ্গে সংযোগ দেয়ার লক্ষ্যে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইসহাক জাহাঙ্গিরি এক বক্তব্যে উল্লেখ করার এক সপ্তাহ পর বাগদাদের পক্ষ থেকে একথা জানানো হলো।

জাহাঙ্গিরি গত সপ্তাহে বলেছিলেন, আমরা পারস্য উপসাগরের উপকূল থেকে ইরাক ও সিরিয়া হয়ে ভূমধ্যসাগর পর্যন্ত রেল ও সড়কপথে সংযুক্ত হবো। ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় শালামচে শহর থেকে ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় বসরা নগরী পর্যন্ত রেললাইন স্থাপনের কথা তুলে ধরে তিনি একথা জানান।

২২২ কোটি রিয়াল ব্যয়ে শালামচে-বসরা রেললাইন নির্মিত হলে ইরাকের ভেতর দিয়ে ইরান ও সিরিয়ার মধ্যে রেল সংযোগ প্রতিষ্ঠিত হবে। গতমাসে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির ইরাক সফরের সময় এ ব্যাপারে তেহরান ও বাগদাদের মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই হয়।

পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে ইরাকের বর্তমান সরকার যে মোটেই আগ্রহী নয় এই রেললাইন স্থাপনে বাগদাদের আগ্রহ থেকে তার প্রমাণ পাওয়া যায়।
-পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য