আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌরসভায় স্ত্রীর শরীরে আগুন দেওয়ার অভিযোগে স্বামীকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ৬নম্বর ওয়ার্ডের নিউপূর্বপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। ওই গৃহবধূর নাম রোজিনা বেগম (২০)। তার স্বামীর নাম আব্দুল্ল্যাহ (২৫)। তিনি মোমিন মিয়ার ছেলে।

রোজিনার জবানবন্দির বরাত দিয়ে পাটগ্রাম থানার ওসি মনসুর আলী জানান, মাগরিবের নামাজের আগে রোজিনা বেগম তার স্বামীকে আত্মীয় আসার খবর জানিয়ে বাড়ির পায়খানা (টয়লেট) ঠিক করতে বলেন। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে আব্দুল্ল্যাহ স্ত্রী রোজিনার শরীরে কেরোসিন ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার গলার নিচ থেকে পা পর্যন্ত পুড়ে গেছে। ওসি জানান, স্বামী আব্দুল্লাহকে আটক করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল করিম বলেন, ‘ঘটনা অবগত হওয়ার পরই হাসপাতালে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিতে নির্দেশ দিয়েছি। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পাটগ্রাম থানার ওসিকে অনুরোধ করা হয়েছে।’

পাটগ্রাম পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার আজিজুল হক দুলাল জানান, স্থানীয়রা আব্দুল্ল্যাহকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে। গৃহবধূকে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতপালে পাঠানো হয়। প্রতিবেশী জবেদ আলী ও মাতলুবা রহমান জানান,আব্দুল্ল্যাহ রোজিনা বেগমকে প্রায় সময় শারীরিক নির্যাতন করতো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য