আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা শহরের পূর্বপাড়ার বাসিন্দা ফয়সাল আহমেদের মেয়ে ফাতেমা বেগমকে (১৫) অপহরণের ৪৫ দিন পর ঢাকার গাজীপুরের সালনা বাজার থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। গোপন সুত্রের মাধ্যমে খবর পেয়ে গাইবান্ধা থানা পুলিশ গাজীপুরে গিয়ে গত ৭ এপ্রিল সালনা বাজারে ঘোরাঘুরি করার সময় মেয়েটিকে উদ্ধার করে।

এসময় অপহরণকারি আল আমিন সেখান থেকে পালিয়ে যায়। অপহরণকারি আল আমিন গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি গ্রামের বাদল মিয়ার ছেলে। সে ঢাকার গাজীপুরে একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে চাকরি করে।

পুলিশ ও পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গাইবান্ধা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী ফাতেমা বেগম গত ২০ ফেব্র“য়ারি কোচিং সেন্টার থেকে বিকেল ৩টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে আল আমিন ও তার সহযোগিরা একটি সিএনজি গাড়িতে জোর করে ফাতেমাকে তুলে নিয়ে গাইবান্ধা শহর থেকে পালিয়ে যায়।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে ফাতেমার বাবা গাইবান্ধা সদর থানায় একটি অপহরণের মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ গোপন সুত্রে খবর পেয়ে গাজীপুরের সালনা এলাকায় অভিযান চালিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। সদর থানার ওসি খান মো. শাহরিয়ার জানান, অপহরণের মামলা দায়েরের পর থেকে আমরা মেয়েটির খোঁজ খবর নিচ্ছিলাম। অবশেষে মেয়েটিকে উদ্ধার করতে পেরেছি। তিনি বলেন, আদালতে মেয়েটিকে হাজির করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য