দিনাজপুর সংবাদাতাঃ গতকাল শনিবার ৬ এপ্রিল রাত আনুমানিক ৯টার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিনাজপুর জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনে ভর্তি হন। সাংবাদিক, সহকর্মীরা দ্রুত জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনে যান। রাত ১০ টায় শাহীন মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন।

৭ এপ্রিল রবিবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গনে সাড়ে ১২টায় প্রথম জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা নামাজে অংশগ্রহন করেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু ও সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, দিনাজপুর শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি রায়হান কবীর সোহাগ, বিরল উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, দিনাজপুর সরকারী কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. মাসুদুল হক, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন, বিএনপি নেতা সাদেক রিয়াজ চৌধুরী পিনাক, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মোকাররম হোসেন, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি চিত্ত ঘোষ, বাংলাদেশের ইউনাইটেট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মোকছেদ আলী মঙ্গলিয়া, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওয়াহেদুল আলম আর্টিষ্টসহ সাংবাদিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দ।

দুপুর ২টায় কসবাস্থ আলামিয়ায় দ্বিতীয় জানাযা নামাজ শেষে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়। মরহুম শাহীন আহমেদের বয়স হয়েছিল ৪৭ বছর।

তিনি স্ত্রী, ২ কন্যা, পিতা-মাতাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। শাহীন এর মৃত্যুতে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় তিনি মরহুমের রুহের আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং শোকাহত পরিবারের সকলকে ধৈর্য্য ধারনের আহবান জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য