পশ্চিমবঙ্গের মালদহে রাহুল গান্ধীর জনসভায় উপচে পড়া ভীড়ের ছবি কংগ্রেসের ইস্তেহারের প্রচ্ছদে ছাপা হয়েছে। উপরে লেখা ‘হম নিভায়েঙ্গে’। আর নীচে রাহুল গান্ধীর একটি ছোট ছবি। তার পাশে কংগ্রেসের প্রতীক চিহ্ন ‘হাত’।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের দাবি, সোনিয়া মনে করেন—মলাটে ভিড়ের ছবিতে রং তেমন ফুটে ওঠেনি। বরং ইস্তাহারের নয় নম্বর পাতায় গ্রামের মহিলাদের সঙ্গে রাহুলের ছবিটি অনেক বেশি রঙিন। সেটিই মলাটে নেওয়া উচিত ছিল। মহাত্মা গান্ধী বা জওহরলাল নেহেরুর মতো কিংবদন্তি নেতাদের ছবি না থাকাতেও আপত্তি রয়েছে সোনিয়ার।

গতকাল আইসিসি দফতরে ইস্তাহার প্রকাশের মঞ্চে ওঠার ঠিক আগে সোনিয়াকে মেজাজ হারাতে দেখেছেন অনেকে। এমনকি নিজের আপত্তির কথা দলের গবেষণা বিভাগের প্রধান রাজীব গৌড়াকে জানাতে দেখা গেছে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রীকে। সোনিয়ার সঙ্গে ইস্তেহার নিয়ে আলোচনার কথা স্বীকার করেন গৌড়া।

কিন্তু তার মতে, ‘বিকল্প অন্য কোনও নেতার ছবি দেওয়ার প্রস্তাব সনিয়া গান্ধী দেননি। ইস্তাহারে নেতাদের মুখ থেকে সাধারণ মানুষকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে। এমনকি স্যাম পিত্রোদার সঙ্গেও কথা হয়েছে। অতীতের ইস্তাহার থেকে এবারের চরিত্রটি আলাদা করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য