আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: রাজধানীর বনানীতে এফ আর টাওয়ারে আগুনের ঘটনায় ছেলের মৃত্যুর কোনো ক্ষতিপূরণ না চেয়ে ফায়ার সার্ভিসের উন্নয়ন চেয়েছেন নিহত আনজির সিদ্দিক আবীরের মা তাশরিফা খানম।

বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। নিহত আনজির সিদ্দিক আবীর এফ আর টাওয়ারের ১৪ তলায় একটি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন।

অগ্নিকাণ্ডে নিহত ছেলের কোনো ক্ষতিপূরণ নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে স্কুল শিক্ষিকা তাশরিফা খানম বলেন, ‘আমি টাকা চাই না। অগ্নিকাণ্ডে আর কোনো মায়ের বুক যেন খালি না হয়-সেই জন্য ফায়ার সর্ভিসের উন্নয়ন চাই।’

আবীরের মা বলেন, ‘বঙ্গমাতা গোলকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে খেলছে পাটগ্রামের টেপুরগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ওই খেলায় বিজয় নিয়ে আসতেই আমার ঢাকা যাওয়া। সেই দিন প্রথম ছেলের অফিসে যাওয়ার কথাও ছিল আমার। কিন্তু বিজয়ের পরির্বতে ছেলের লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে সেটা কখনো ভাবিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনার পর বনানী থানা থেকে ফোন করা হয়েছিল। আমি যদি ছেলের মৃত্যুর অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে মামলা করি, তাহলে অনুদান পাব। আমি আপনাদের মাধ্যমে বলতে চাই, আমি ছেলের মৃত্যুর ক্ষতিপূরণের কোনো টাকা চাই না। ওই টাকা দিয়ে ফায়ার সার্ভিসের উন্নয়নের দাবি করছি। আমি আমার ছেলের মৃত্যুর জন্য মামলা করব না। নিজস্ব অর্থায়নে যদি পদ্মা সেতু নির্মাণ করা সম্ভব হয়। তাহলে ফায়ার সার্ভিসের উন্নয়ন সম্ভব নয় কেন? আমি চাই অগ্নিকাণ্ডে আর কোনো মায়ের বুক যেন খালি না হয়।’

এ সময় আনজির সিদ্দিক আবীরের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আবীরের বিয়ের প্রাথমিক প্রস্তুতি চলছিল। কিন্তু আমার ছেলে যে অকালেই চলে যাবে, তা ভাবতেই কষ্ট হচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার বনানীর এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৭০ জন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য