জ্বালানির দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে তোপের মুখে পড়েছে তিউনিসিয়া সরকার। রাজনৈতিক দলগুলোর বাইরে সাধারণ মানুষও সরকারের এমন ঘোষণায় ক্ষুব্ধ। ফলে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করছেন তারা। এ সিদ্ধান্ত বাতিলের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দল এবং ট্রেড ইউনিয়নগুলো। অন্যথায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ও অবরোধ ডাকার হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে মিডল ইস্ট মনিটর।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৭ সালের পর এই ষষ্ঠবারের মতো জ্বালানির দাম বাড়ালো তিউনিসিয়া। সরকারের সংস্কার কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যেই এমন পদক্ষেপ। একদিকে বাজেট ঘাটতি মোকাবিলা অন্যদিকে আইএমএফের চাপের ফলে অজনপ্রিয় এই কর্মসূচির হাতে নিয়েছে সরকার। ২ দশমিক ৯৮ বিলিয়ন ডলারের একটি ঋণের জন্য এ সংস্কার কর্মসূচি বাস্তবায়নের শর্ত দিয়েছিল আইএমএফ।

জ্বালানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তের স্বপক্ষে নিজের অবস্থানের কথা জানিয়েছেন তিউনিসিয়ার শিল্পমন্ত্রী সেলিম আল ফেরিয়ানি। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির দাম বাড়ায় দেশের বাজারেও দাম সমন্বয় করা হয়েছে। অথচ নতুন করে দাম বাড়ানোর কয়েক সপ্তাহ আগেই এক অনুষ্ঠানে তিনি সরকারের জ্বালানির দাম বৃদ্ধির পরিকল্পনার খবরকে গুজব হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য