গুয়াতেমেলার একটি অন্ধকারাচ্ছন্ন মহাসড়কে চলন্ত একটি ট্রাকের ধাক্কায় অন্তত ৩২ জন নিহত হয়েছেন।

বুধবার রাতে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় সোলোলার নাহুয়ালা শহরে প্যান-আমেরিকান মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে বলে খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের।

স্থানীয় দমকলের মুখপাত্র সেসিলিও চাকা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, একই মহাসড়কে আরেকটি গাড়ি অপর এক ব্যক্তিতে ধাক্কা দেওয়ার পর লোকজন ঘটনাস্থলে জড়ো হয়েছিলেন, তখন অন্ধকারের মধ্যে চলন্ত ট্রাকটি তাদের ধাক্কা দেয়।

ঘটনাস্থলেই ৩২ জন নিহত হন। সঙ্কটজনক অবস্থায় নয় জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে স্থানীয় রেডিওতে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী কার্লোস সোতো।

নিহতদের মধ্যে শিশু ও নারী রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দমকলকর্মীরা।

সেসিলিও চাকা বলেন, “প্রথম ঘটনায় অজ্ঞাত একটি গাড়ি এক ব্যক্তিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়, প্রতিবেশীরা রাস্তায় পড়ে থাকা নিহত ব্যক্তির লাশের কাছে জড়ো হন, কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে পণ্যবাহী একটি বড় ট্রাক তাদের ধাক্কা দেয়।”

উত্তর আমেরিকার সঙ্গে দক্ষিণ আমেরিকাকে সংযোগকারী প্রায় ৪৮ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ প্যান-আমেরিকান মহাসড়ক অন্যতম সবচেয়ে বিপজ্জনক সড়ক বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও উদ্ধারকারীরা।

গত কয়েক বছরের মধ্যে গুয়াতেমালার সবচেয়ে প্রাণঘাতী সড়ক দুর্ঘটনাগুলোর মধ্যে এ দুর্ঘটনাটি অন্যতম। ২০১৩ সালে দেশটিতে একটি যাত্রীবাহী বাস পাহাড়ি খাদে পড়ে অন্তত ৪৩ জন নিহত হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য