দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দেশের একমাত্র দিনাজপুরের পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির প্রভাবে খনির সংলগ্ন চৌহাটি গ্রামে নতুন করে ফাটল দেখা দিয়েছে। নতুন করে ফাটল দেখা দেওয়ায় গ্রাম বাসির মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ৩দিন আগে নতুন করে ফাটল দেখা দেওয়ায় গ্রামবাসিরা রাতের বেলায় পরিবার পরিজন নিয়ে নির্ঘুম সময় কাটাচ্ছেন। তাদের মধ্যে একটাই ভয় কাজ করছে কখন যেন, ঘরবাড়ি ধ্বসে পড়ে প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

আজ শনিবার দুপুরে সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় চৌহাটি গ্রামের অধিকাংশ বাড়ীঘরে ফাটল দেখা দিয়েছে।

গ্রামের অধিবাসিরা জানান, গত ৩দিন আগে হঠাৎ করে তাদের বাড়ীঘরে ফাটল ধরতে শুরু করে। নতুন করে এই গ্রামের বাড়ী ঘরে ফাটল ধরায় গ্রাম বাসিদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

এই গ্রামের যাদের অধিকাংশ জমি ও ঘরবাড়ি ফাটল দেখা দিয়েছে তাদের মধেথ্য রয়েছেন, পার্বতীপুর উপজেলার হামিদর্পু ইউনিয়নের খনির সংলগ্ন চৌহাটি গ্রামের জগিদুল (৫৫) ২৭ শতক, শিরিনা বেগম (৪৫) বাড়ির দেওয়ার-মেঝেসহ ৩টি ঘরসহ ৭ শতক, গীতা রানী (৪৩) ৪ শরিকের বাড়ি ২০ শতক, ধনেশ চন্দ্র (৩৮), মানিক চন্দ্র (৩০), আজমল ( ২৮) সাড়ে ৪ শতক, সালেহা বেগম (৫০) ঘরে ফাটল, জশোর উদ্দিন বাগান বাড়ির ২৫ শতাংশ, শহিদুল ইসলাম ১০ শতাংশ বাগানবাড়ি, আনোয়ার হোসেন পাকা বাড়ি ফাটল, আবুল হোসেন পাকা বাড়ি ফাটল, মোজাফ্ফর হোসেন, শহিদুল ইসলাম, সাদেকুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলাম, আবুল কালাম সহ অনেকের।

এলাকাবাসী জানায়, কয়লা খনির প্রভাবেই নতুন করে তাদের এলাকার জমি ও ঘরবাড়ীতে ফাটল ধরেছে।

তারা জানায়, কয়লা খনির ১৩১৪ নম্বর ফেজে কয়লা উত্তোলন শেষ হওয়ার পর ১৩০৮ নম্বর ফেজ থেকে চলতি মাসের ৯ই মার্চ থেকে পুরোদমে কয়লা উত্তোলন শুরু হয়েছে। এরেই প্রভাব পড়েছে চৌহাটি গ্রামে।

এব্যাপারে আজ শনিবার বিকেল ৪টায় বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোঃ ফজলুর রহমানের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে, তিনি বলেন, ফাটল কবলিত চৌহাটি গ্রাম পরিদর্শন করেছি। ঘটনার আলোকে বাস্তব সম্মত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য