বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর এক জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, আমরা দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগ পরিবার আদর্শিক নেত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত ভ্যানগার্ড হিসেবে সকল ব্যক্তিক চাওয়া, পাওয়া মতভেদ ভুলে দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে দিন-রাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছ।

ছাত্রলীগ কারো ব্যক্তিগত সংগঠন নয়। ছাত্রলীগ জাতির জনকের নিজ হাতে গড়া এশিয়া উপ-মহাদেশের সর্ব-বৃহৎ ছাত্র সংগঠন। কেহ বা কাহারো ব্যক্তিগত স্বার্থে ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করলে দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগ পরিবার কঠোর সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেবে।

গত ১৭/০৩/২০১৯ ইং দিবাগত রাতে একটি একান্ত ব্যক্তিগত মারধরকে কেন্দ্র করে ২০/০৩/২০১৯ ইং দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সামনে ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের ব্যানারে একটি মানববন্ধন করলে, বিভিন্ন সাংবাদিকরা আমাদের টেলিফোন করে যে তারা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী কি-না?

এই মর্মে বলতে চাই যে, মোঃ মেহেদী হাসান প্রিন্স ও ইরফান আবির খান (পাপ্পু) আমাদের জেলা ছাত্রলীগের কোন ইউনিটের লিখিত নেতা বা কর্মী নয়।

পরবর্তীকে কেহ বা কাহারা যদি কোন অনৈতিক কার্যকলাপের ব্যক্তিগত স্বার্থে দিনাজপুর ছাত্রলীগ এর নাম ব্যবহার করে তাহলে আমরা দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগ পরিবার এর দ্বায়ভার নেব না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য