পাটগ্রামে চলছে বোমা মেশিন, হুমকিতে সড়ক রক্ষা বাঁধ ও বসত বাড়ি I+আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকেঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম থানা ভবনের পাশে বুড়িমারী সড়ক সংলগ্ন ধরলা নদী থেকে বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে বুড়িমারী-পাটগ্রাম সড়ক ও নদী রক্ষা বাঁধসহ এলাকার আবাদী জমি ও বসত বাড়ি হুমকির মুখে পড়েছে।

সড়ে জমিনে ওই এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আইয়ুব কাঠুরীয়া নামে এক ব্যক্তি প্রায় ১ মাস ধরে পাটগ্রাম থানা ভবনের পাশে বুড়িমারী-পাটগ্রাম সড়ক সংলগ্ন ধরলা নদী থেকে ৬ সিলিন্ডারের বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে পাশে একটি পুকুর ভরাটসহ বালুর জমজমাট ব্যবসা করছে। ওই এলাকায় বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে পাশে নদী ভাঙ্গন থেকে সড়ক রক্ষার্থে বাঁধসহ এলাকার আবাদী জমি ও বসত বাড়ি হুমকির মুখে পড়েছে।

ওই এলাকার রহিজ উদ্দিন জানান, বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন ফলে শুধু আবাদী জমি ও নদীর ভাঙ্গন রক্ষার বাঁধ হুমকির মুখে নয়। আমাদের বসত বাড়ি গুলোর হুমকির মুখে পড়েছে।

এ প্রসঙ্গে ওই বোমা মেশিনের মালিক আইযুব আলীর সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করা হলেও তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পুলিশ বলছে, ইউএনও’র অনুমতি নিয়ে বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন হচ্ছে।

তবে ইউএনও আব্দুল করিম জানান, বোমা মেশিন নয়, মূলত শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন হচ্ছে।

পাটগ্রাম থানার ওসি মনছুর আলী জানান, শুনেছি ওই এলাকায় মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনে নাকি ইউএনও’র অনুমতি আছে। তারপরও আমি ইউএনও’র সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম জানান, বোমা মেশিন নয়, মূলত শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন হচ্ছে। এতে যদি বাঁধ হুমকির মুখে পড়ে তাহলে ওই মেশিন বন্ধ করে দেয়া হবে। বোমা মেশিন বা শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু ও পাথর উত্তোলনের কোনো আইনগত বৈধতা আছে কিনা এমন প্রশ্নে কোনো উত্তর দেয়নি ইউএনও আব্দুল করিম।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য