কুড়িগ্রামে সাংবাদিক রাজার মরদেহ নিজ বাড়িতে দাফন সম্পন্ন R+কুড়িগ্রামের কৃতি সন্তান সাংবাদিক ও ভাওয়াইয়া গানের কিংবদন্তি শফিউল আলম রাজা (৫২)’র মরদের তার গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

সোমবার সকালে ঢাকা থেকে তার মরদেহ প্রথমে কুড়িগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে নিয়ে আসা হয়। এখানে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাব, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, বাংলাদেশ ভাওয়াইয়া একাডেমি তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এসময় শোক জানান জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক খ.ম আতাউর রহমান বিপ্লব, সিনিয়র সাংবাদিক সফি খান, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহবায়ক শ্যামল ভৌমিক, ভাওয়াইয়া একাডেমির পরিচালক ভূপতি ভূষণ বর্মা, ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি জ্যোতি আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক দুলাল বোস প্রমুখ।

পরে দুপুর ১২টায় চিলমারী থানাহাট এ.ইউ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নামাজে জানাযা শেষে শ্রদ্ধা জানান চিলমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম, চিলমারী প্রেসক্লাবের সভাপতি নজরুল ইসলাম সাবু, প্রেসক্লাব চিলমারী’র সভাপতি গোলাম মাহবুব, সাপ্তাহিক যুগের খবর পত্রিকার নুরুল আমিন প্রমুখ। তার মৃত্যুতে বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন এবং শিল্পী সমাজের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়।

সাংবাদিক রাজার শেষ জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয় দুপুর আড়াইটায় তার গ্রামের বাড়ী চিলমারী উপজেলার জোরগাছ এলাকার খরখরিয়া ভট্ট পাড়ায়। এখানে মন্ডলপাড়া কেন্দ্রীয় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। বিশিষ্ট এ সাংবাদিক সর্বশেষ অনলাইল নিউজ পোর্টাল প্রিয় ডটকমের প্রধান প্রতিবেদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এছাড়াও এই শিল্পী সাংবাদিক পল্লবীতে তার নিজের প্রতিষ্ঠিত ‘কলতান সাংস্কৃতিক একাডেমি’ পরিচালনা করতেন। এখানেই রোববার দুপুরে হ্নদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পরেন তিনি। পিতৃ-মাতৃহীন এই সাংবাদিক মৃত্যুকালে স্ত্রী ও তিন সন্তানসহ অনেক গুণগ্রাহি রেখে গেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য