04. Maoist attack in Biharদিল্লিসহ ভারতের ১১টি রাজ্য ও তিনটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৯১টি আসনে লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় দিল্লির ৭টি, জম্মু ও কাশ্মীরের ১টি, হরিয়ানার ১০টি, চণ্ডীগড়ের ১টি, উত্তর প্রদেশের ১০টি, মধ্যপ্রদেশের ৯টি, মহারাষ্ট্রের ১০টি, ঝাড়খণ্ডের ৫টি, বিহারের ৬টি, উড়িষ্যার ১০টি, কেরালার ২০টি, আন্দামান নিকোবার এবং লাক্ষাদ্বীপের একটি করে লোকসভা আসনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।
১১টি রাজ্যের মোট ৯১টি আসনে প্রার্থীর সংখ্যা ১৪১৮ জন। এ দফার নির্বাচনে হেভিওয়েট প্রার্থীর সংখ্যাও একেবারে কম নয়। লোকসভার স্পিকার মীরা কুমার, কপিল সিবাল, কমল নাথ, শশী থারুরসহ সাত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ভাগ্য নির্ধারণ করছেন প্রায় ১১ কোটি ভোটার। বিজেপির হেভিওয়েটদের তালিকায় নাম রয়েছে কিরণ খের, সাবেক সেনা প্রধান ভি কে সিং ও হর্ষবর্ধনের। আম আদমি পাটির্র নেতা গুল পনাগ, আশুতোষ ও শাজিয়া ইলমি নির্বাচনে লড়ছেন।
এদিকে, কড়া নিরাপত্তায় সত্ত্বেও তৃতীয় দফা ভোটের দিন সকালে বিহারের মাওবাদী হামলায় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফ’র দুই জওয়ান নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও তিন জন।
জানা গেছে, ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে দু’টি জিপে করে জামুই কেন্দ্রের একটি বুথে যাচ্ছিলেন জওয়ানরা। ভীমবাঁধ জঙ্গলে ঢোকার মুখে সওয়া লাখ বাবা মন্দিরের কাছে বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে দুই জওয়ানের মৃত্যু হয়।
জামুই লোকসভা আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে এলজেপি প্রধান রামবিলাস পাসোয়ানের ছেলে চিরাগ পাসওয়ান। তার মূল প্রতিপক্ষ বিহার বিধানসভার স্পিকার ও জেডিইউ নেতা উদয় নারায়ণ চৌধুরী। নির্বাচনের আগেই ভোট বয়কটের ডাক দিয়েছে মাওবাদীরা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য